অনলাইন ডেস্কঃ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) এক শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে একই ব্যাচের চার সহপাঠীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় তোলপাড় শুরু হয়েছে দেশের অন্যতম সর্বোচ্চ এই বিদ্যাপীঠে। এরইমধ্যে এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে।

ফেসবুকে যৌন হয়রানির এ ঘটনায় প্রতিবেদন পাওয়ার পর ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আর সামাজিক অবক্ষয়ের কারণেই এমন ঘটনা ঘটছে বলে মনে করছেন সমাজবিজ্ঞানীরা।

অভিযুক্তদের সবাই সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৯ ব্যাচের শিক্ষার্থী। এদের একজন জারিফ হোসেইন। যিনি একই ব্যাচের স্থাপত্য বিভাগের এক নারীকে শিক্ষার্থীকে উত্যক্ত করতে শুরু করেন। চাহিদামতো সায় না পেলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চালিয়ে যান যৌন হয়রানি। ন্যাক্কারজনক এই কাজে তাকে সহায়তা করেন ৩ সহপাঠী- জাহিদ মনোয়ার চৌধুরী, জারিফ ইকরাম ও সালমান সায়ীদ।

এ নিয়ে ভুক্তভোগীর অভিযোগ পেয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। অপরাধ করে পার পেয়ে যাবার অপসংস্কৃতি এবং মুল্যবোধের সংকটই এমন অবক্ষয়ের জন্য দায়ী বলে মনে করেন সমাজবিজ্ঞানীরা।

সন্তানকে শুধু ভালো ছাত্র হিসেবে না, ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতেও অভিভাবকদের পরামর্শ দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক। সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here