অনলাইন ডেস্কঃ সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে টিকা চুরি ও বিক্রির অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগনার একটি সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে এই টিকা চুরির ঘটনা ঘটে।

আটক ওই যুবকের নাম মিঠুন মণ্ডল। তিনি ডায়মন্ড হারবারের পঞ্চগ্রাম হাসপাতালের ফার্মাসিস্ট। এ ছাড়া তিনি মশাট স্বাস্থ্যকেন্দ্রে টিকার কো-অর্ডিনেটরও ছিলেন।

পুলিশ জানিয়েছে, মিঠুন বাসন্তী থানা এলাকার বাসিন্দা। সোনারপুরে বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকতেন তিনি।

সম্প্রতি রাজপুর-সোনারপুর পৌরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের স্বরূপনগরে একটি বাড়িতে বেআইনি ক্যাম্প করে এলাকার প্রায় ৪০ জনকে টিকা দিয়েছেন তিনি। টিকার জন্য একেকজনের কাছে ৫০০ থেকে এক হাজার টাকা করে নিয়েছেন। টিকা নেওয়ার পরে মোবাইলে মেসেজ না আসায় সন্দেহ হয় স্থানীয়দের। তখনই তারা সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

তদন্তে নেমে রূপনগর এলাকা থেকে মিঠুনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার কাছে কোভিশিল্ডের দু’টি ভায়াল পাওয়া গেছে। তাকে তিনদিনের রিমান্ডের নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

মিঠুনের কাছে উদ্ধার হওয়া টিকা আসল কি না তা জানার জন্য সেগুলো পরীক্ষা করতে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে জেলার স্বাস্থ্য দপ্তরও।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯ হাজার ৭৪২ জন। দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলেও দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা সামান্য কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিডে মৃত্যু হয়েছে ৫৩৫ জনের। বেশিরভাগ রাজ্যে সংক্রমণ কমলেও উদ্বেগ বাড়াচ্ছে কেরালা ও মহারাষ্ট্র।

কেরালায় গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৮ হাজার ৫৩১। অন্য দিকে মহারাষ্ট্রে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬ হাজার ২৬৯ জন। অর্থাৎ এই দুই রাজ্যে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ হাজার ৮০০, যা দেশের দৈনিক সংক্রমণের ৬২ দশমিক ৪০ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, রোববার (২৫ জুলাই) পর্যন্ত ভারতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ১৩ লাখ ৭১ হাজার ৯০১। এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ২০ হাজার ৫৫১ জনের। দেশটিতে মোট কোভিড সংক্রমণের হার কমে হয়েছে ৬ দশমিক ৮৮ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণের হারও কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে কোভিড সংক্রমণের হার ২ দশমিক ৩১ শতাংশ।

আক্রান্তের তুলনায় গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সুস্থতার সংখ্যা সামান্য বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩৯ হাজার ৯৭২ জন। এখন পর্যন্ত মোট ৩ কোটি ৫ লাখ ৪৩ হাজার ১৩৮ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। অর্থাৎ ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যা কমেছে। এই মুহূর্তে ভারতে মোট সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৪ লাখ ৮ হাজার ২১২।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে মোট ১৭ লাখ ১৮ হাজার ৭৫৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৪৫ কোটি ৬২ লাখ ৮৯ হাজার ৫৬৭ জনের। অন্যদিকে একদিনে দেশটিতে ৫১ লাখ ১৮ হাজার ২১০ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। টিকাকরণ শুরু হওয়ার পর থেকে এখনও পর্যন্ত ৪৩ কোটি ৩১ লাখ ৫০ হাজার ৮৬৪ জন টিকা পেয়েছেন দেশে। সূত্র: সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here