অনলাইন ডেস্কঃ ভিতালিনা বাতসারাশকিনার হাত ধরে টোকিও অলিম্পিকসে প্রথম স্বর্ণ জয়ের স্বাদ পেয়েছে রাশিয়া। রোববার (২৫ জুলাই) আসাকা শুটিং রেঞ্জে নারীদের ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে ২৪০ দশমিক ৩ স্কোর নিয়ে অলিম্পিকের রেকর্ড গড়ে জেতেন ভিতালিনা। ২৩৯ দশমিক ৪ স্কোর নিয়ে রূপা পেয়েছেন বুলগেরিয়ার আন্তোয়ানেতা কস্তাদিনোভা।

এ ইভেন্টের বাছাইয়ে ৫৮৭ স্কোর নিয়ে বিশ্বরেকর্ড ছোঁয়া চীনের জিয়াং রানশিনের সঙ্গী হয়েছে ব্রোঞ্জ পাওয়ার হতাশা। এটি অলিম্পিকের বাছাইয়ের রেকর্ডও। ২০১৮ সালে গ্রিসের আন্না কোরাকাকির বিশ্বরেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন জিয়াং।

১০ মিটার এয়ার পিস্তলে হতাশ করেছেন আরুনোভিচ জোরানা। ২০১৭ সালে ২৪৬ দশমিক ৯ স্কোর নিয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়া সার্বিয়ান এই শুটার টোকিওতে বাছাইয়ে বাদ পড়েন ১৭তম হয়ে।

একই দিনে স্বপ্ন পূরণ হয়নি বাংলাদেশি শুটার আবদুল্লাহ হেল বাকির। ১০ মিটার এয়ার রাইফেলের বাছাইপর্ব থেকে বিদায় নিয়েছেন কমনওয়েলথ গেমসে রৌপ্য জয়ী এই শুটার‌।

১০ মিটার এয়ার রাইফেলের লড়াইয়ে নামেন ৩২ বছর বয়সী এই শুটার। তবে শুরুতেই ছন্দপতন ঘটে তার। যেখানে ৬১৯ দশমিক ৮ স্কোর করে ৪৭ জন প্রতিযোগীর মধ্যে ৪১তম হয়েছেন দেশ সেরা এই শুটার। সবমিলিয়ে ৬ সিরিজে ৬০ শুটে বাকির গড় স্কোর ছিল ১০ দশমিক তিন তিন।

এটা বাকির দ্বিতীয় অলিম্পিক। এর আগে, ২০১৬ সালে রিও অলিম্পিকে বাছাইপর্বে ৬২১ দশমিক দুই স্কোর করে ৫০ প্রতিযোগীর মধ্যে ২৫তম হয়েছিলেন আবদুল্লাহ হেল বাকি।

এদিকে, আগামী মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) বাংলাদেশের রোমান সানা পুরুষ এককের লড়াইয়ে নামবেন। আর দিয়া সিদ্দিকী নামবেন বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই)।

এ ছাড়া আগামী শুক্রবার (৩০ জুলাই) ৫০ মিটারের ফ্রিস্টাইল সাঁতারে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন যথাক্রমে জুনায়না আহমেদ এবং আরিফুল ইসলাম। আগামী ১ আগস্ট পুরুষদের ৪০০ মিটারে নামবেন মোহাম্মদ জহির রায়হান।

বাংলাদেশ সময় শুক্রবার (২৩ জুলাই) বিকেল ৫টায় উদ্বোধন হয় টোকিও অলিম্পিকের আসর। দর্শকহীন গ্যালারির সামনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে চলে উদ্বোধনী কর্মযজ্ঞ। চার ঘণ্টাব্যাপী চলে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। যার বেশিরভাগ পারফরমেন্সই হয়েছে ভার্চুয়ালি। যদিও দেশটির সরকারের কাছে স্থানীয়দের দাবি ছিল, অলিম্পিক বাতিল করা হোক। টোকিও শহরে কোনো উৎসব চান না সে দেশের সাধারণ নাগরিকরা। স্থানীয়রা বলছেন, করোনার মধ্যে এমন আসর তারা চান না। প্রত্যেক নাগরিক ঝুঁকির মধ্যে সময় পার করছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যারা উপস্থিত ছিলেন তাদের নিয়েও শঙ্কা প্রকাশ করেছেন টোকিওর নাগরিকরা। আগামী ৮ আগস্ট পর্দা নামাবে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ খ্যাত অলিম্পিকের। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here