অনলাইন ডেস্কঃ ঐতিহ্য ও শিল্প নৈপুণ্যে সমৃদ্ধ ইংল্যান্ডের মর্যাদাপূর্ণ শহর লিভারপুল। আঠারো ও উনিশ শতকে ভবনের দুর্লভ নির্মাণশৈলী ও খোদাই করা নকশার জন্য বিশ্বের অন্যতম ঐতিহ্যপূর্ণ শহর হিসেবে পরিচিতি লাভ করে শহরটি। এছাড়া উন্নত বন্দর ব্যবস্থাপনার জন্য বিখ্যাত ছিল লিভারপুল। তবে এ মর্যাদা ধরে রাখতে পারল না শহরটি। বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে লিভারপুলকে।

স্থানীয় সময় বুধবার (২১ ‍জুলাই) চীনে জাতিসংঘের সংস্কৃতিবিষয়ক সংস্থার এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ইউনেস্কোর দাবি, অপরিকল্পিত নগরায়ণের কারণে নগরীর সৌন্দর্য নষ্ট হচ্ছে। লিভারপুলে অত্যাধুনিক ফুটবল স্টেডিয়াম তৈরির মেগা প্রকল্পকেও বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার কারণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।
তবে এমন সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন শহরটির মেয়রসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
লিভারপুলের মন্ত্রিপরিষদের অর্থনৈতিক উন্নয়ন বিষয়ক সদস্য সারাহ ডয়েল বলেন, ইউনেস্কোর এমন সিদ্ধান্তে আমরা হতাশ। দশ বছর আগে তারা আমাদের দেশে এসেছিল। তাই এ সিদ্ধান্ত কোনোভাবেই আমরা মেনে নিতে পারছি না। আমরা চাই তারা এসে দেখুক ঐতিহ্য রক্ষায় আমরা কত টাকা বিনিয়োগ করেছি।
এর আগে ২০১২ সালে লিভারপুলকে ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ ইন ডেঞ্জার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে সর্তক করেছিল ইউনেস্কো। জাতিসংঘের এমন সিদ্ধান্ত দুশ্চিন্তায় ফেলেছে বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় থাকা অন্য দেশগুলোকেও। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here