অনলাইন ডেস্কঃ নির্ধারিত সময়ে খেলা শুরুর আগে টস হওয়ার পরও মাঠে গড়াল না অস্ট্রেলিয়া-ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচ। করোনা আক্রান্তের খবরে স্থগিত করা হয় খেলাটি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সাপোর্ট স্টাফ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবরে শেষ মুহূর্তে এ ম্যাচ স্থগিত করা হয়।

এরপরই দুই দলের সবাইকে জরুরি ভিত্তিতে মাঠ থেকে ফিরিয়ে নেওয়া হয়েছে হোটেলে এবং পাঠানো হয় আইসোলেশনে। নতুন করে আবারও করোনা পরীক্ষা করা হবে তাদের। করোনা পরীক্ষার ফলাফলের ওপরই নির্ভর করছে এ সিরিজের ভাগ্য।

এক বিবৃতিতে ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ জানিয়েছে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের খেলোয়াড় নন এমন একজন কোভিড-১৯ পরীক্ষায় পজিটিভ হওয়ার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ওয়ানডে স্থগিত করা হয়েছে। টস হয়ে যাওয়ার পর এ খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
তবে দ্বিতীয় ওয়ানডে স্থগিত হলেও সূচি পুনর্নির্ধারণের সুযোগ নেই উইন্ডিজের সামনে। কারণ সামনে অস্ট্রেলিয়ার ব্যস্ত সূচি। এই সিরিজ শেষ করেই বাংলাদেশে আসার কথা তাদের। উইন্ডিজের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডে খেলেই বাংলাদেশের বিমানে ওঠার কথা আছে অজিদের।
তবে বাংলাদেশ সফর নিয়ে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা। আইসোলেশনে থাকা নিয়ে এখনও শতভাগ কিছুই বলা যাচ্ছে না। পুরো দল এখন আইসোলেশনে থাকায় কিছুটা অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ নিয়ে। পুনরায় করোনা পরীক্ষার ফলাফলে নতুন করে কেউ পজিটিভ হলে পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে? তা নিয়ে রয়েছে ধোঁয়াশা।
সূচি অনুযায়ী ৩ আগস্ট শুরু হওয়ার কথা বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টি সিরিজ। মিরপুরের শের-এ-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে গড়াবে সবগুলো ম্যাচ। সূত্র; সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here