অনলাইন ডেস্কঃ মাদারীপুরের কালকিনিতে কুকুরের কামড়ে আহত নয়ন পাল (৩৪) নামে এক ওষুধ ফার্মেসির কর্মচারীর মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে তিনি ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এদিকে বড় ছেলের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে দুপুরে বিষপানে করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান মা মেঘনা পাল (৬০) । শুক্রবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

নিহত নয়ন পৌর এলাকার দক্ষিণ রাজদী গ্রামের গৌতম পালের ছেলে। তিনি উপজেলা সদরের হাওলাদার ওষুধ ফার্মেসির কর্মচারী ছিলেন।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ১৭দিন আগে নয়ন পালকে একটি কুকুর কামড় দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

চিকিৎসায় তার অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। বুধবার সকালে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ঢাকার মহাখালীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এদিকে সংসারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ছেলের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে তার বৃদ্ধ মা মেঘনা পাল (৬০) বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কালকিনি হাসপাতালে ভর্তি করেন।

অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। আজ শুক্রবার সকালে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

প্রতিবেশী মেহেদী হাসান ও দিদার হোসেন বলেন, ছেলে নয়নের মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছিলেন মেঘনা পাল। বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আজ তার মৃত্যু হয়েছে।

তারা জানান, নয়নের বাবা ২০ বছর আগে মারা গেছেন। তার মা তাকে লালন পালন করে বড় করেছিলেন। এ ঘটনায় পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here