অনলাইন ডেস্কঃ চীনের মধ্যাঞ্চলীয় হেনান প্রদেশে বন্যায় কমপক্ষে ৩৩ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। ৩ লাখ ৫০ হাজার মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

গত ২০ জুলাই হেনানের রাজধানী ঝেংঝুতে ভারী বর্ষণে তীব্র বন্যা দেখা দেয়। দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের খবর অনুসারে, ২২ জুলাই পর্যন্ত বন্যায় ৩৩ জন প্রাণ হারায় এবং আটজনকে এখনো খুঁজে পাওয়া যায়নি।

ঝেংঝু থেকে লাখ লাখ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। এখনও কয়েক লাখ মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় ওই শহরে অবস্থান করছে।  
চীনের আবহাওয়াবিদরা বলছেন, হেনানে গত এক হাজার বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভারি বৃষ্টি হয়েছে। এক কোটি ২০ লাখ জনসংখ্যার ঝেংঝু পীত নদীর তীরে অবস্থিত।
বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, গত শনিবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত ঝেংঝুতে ৬১৭ দশমিক ১ মিলিমিটার (২৪ দশমিক ৩ ইঞ্চি) বৃষ্টিপাত হয়েছে, যা সেখানকার বার্ষিক গড় বৃষ্টিপাতের প্রায় সমান (৬৪০ দশমিক ৮ মিলিমিটার বা ২৫ দশমিক ২ ইঞ্চি)।
মুষলধারে বৃষ্টির প্রভাবে সৃষ্ট বন্যার কারণে ঝেংঝুর রেল ও সড়ক যোগাযোগ বিঘ্নিত হচ্ছে। বাঁধ ও জলাধারগুলোতে পানির উচ্চতা ফুলে ফেঁপে উঠেছে। দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রদেশজুড়ে কয়েক হাজার সেনা মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।
২২ জুলাই চীনের পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় জানায়, দেশটির বড় নদীগুলোর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ১০টি স্থান মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছে। সূত্র: সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here