অনলাইন ডেস্কঃ টোকিও অলিম্পিকে এবার দেখা যাবে না জ্যামাইকান বজ্রবিদ্যুৎ উসাইন বোল্টকে। ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডের রাজাকে ছাড়াই ২৩ জুলাই আনুষ্ঠানিকভাবে পর্দা উঠবে টোকিও অলিম্পিকের। শেষ পর্যন্ত সব অনিশ্চয়তা কাটিয়ে গেমস শুরুর খবরে স্বস্তি ফিরেছে বোল্টের প্রাণে। গেমস না হলে নিজেদের মেলে ধরার সুযোগ হারাতো অ্যাথলেটরা। এমনটাই জানিয়েছেন বোল্ট। দু’মাস বয়সী জমজ সন্তান ও বান্ধবীর পাশে থাকার কারণেই টোকিও’তে আসতে পারছেন না তিনি। তবে, শুভ কামনা জানিয়েছেন নতুনদের জন্য।

উসাইন বোল্ট। বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে জ্যামাইকান বজ্রবিদ্যুৎ, ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডের রাজা আরও অনেক নামেই পরিচিত বোল্ট। তিনবার ২০০ মিটার স্প্রিন্টে স্বর্ণজয়ী প্রথম অ্যাথলেট উসাইন বোল্ট। দু’বার করে জয়ের রেকর্ড আছে মাইকেল জনসন ও ক্যালভিন স্মিথের। দু’বার ১০০ ও ২০০ মিটারে ডাবল জয়ের কীর্তি আছে তার। জ্যামাইকার ট্রিলনিতে বেড়ে ওঠা বোল্ট গেল কয়েকটি আসরে ছিলেন সবার আকর্ষনের কেন্দ্র জুড়ে।

২০০৯ সালে বার্লিন অলিম্পিকে ১০০ মিটারে ৯ দশমিক পাঁচ আট সেকেন্ড সময় নিয়ে বিশ্ব রেকর্ড গড়েছিলেন বোল্ট। ২০০ মিটারে ১‌৯ দশমিক ১৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে বিশ্বরেকর্ডও তার দখলে। ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডের রাজার দখলে আছে এমন ভুরিভুরি রেকর্ড। তবে, টোকিওতে আর আলো ছড়াতে দেখা যাবে না বোল্টকে। তবে, নিজেকে নিয়ে আর ভাবছেন না বোল্ট। তার চিন্তা জুড়ে আছেন গেল কয়েক বছর ধরে যারা টোকিও অলিম্পিকের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন সে সব অ্যাথলিটরা।
করোনার কারণে আসর নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছিল। তবে, নানা বাধা পেরিয়ে অবশেষে আসর শুরু হওয়ার খবরে খুশি এই জ্যামাইকান।
উসাইন বোল্ট বলেন, সারা বছর ধরে টোকিও অলিম্পিকের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছে খেলোয়াড়রা। অলিম্পিক না হলে এই খেলোয়াড়রা মানসিকভাবে ভেঙে পড়তো। যেটা আমি চাইনি। অলিম্পিক হচ্ছে এটাই আমার কাছে সবচেয়ে বড় আনন্দের। আশা করছি করোনা জয় করে আসরে নতুন নতুন রেকর্ড গড়বে ওরা।
কথা ছিলো ট্র্যাকে না হলেও, আসরে অতিথি হিসেবে হলেও আসবেন বোল্ট। অনুপ্রেরণা যোগাবেন খেলোয়াড়দের। কিন্তু দু’মাস আগেই যমজ সন্তানের বাবা হয়েছেন তিনি। বান্ধবীর পাশে থাকার জন্যই টোকিও না আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বোল্ট।
উসাইন বোল্ট আরও বলেন, আমার বান্ধবী যখন অন্তঃসত্তা ছিল, তখন আমি তার কষ্টগুলো দেখছি এবং তাকে রেখে টোকিওতে গেলে অন্যায় হবে। এ সমযে তার পাশে থাকাটাই আমার কাছে জরুরি। তবে, সবার জন্য রইলো শুভকামনা।
যদিও টোকিওতে না গেলেও টিভি পর্দায় খেলার খবর ঠিকই রাখবেন বোল্ট। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here