অনলাইন ডেস্কঃ বিজেপিকে ভারতবর্ষ থেকে হঠানোর শপথ নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, যতদিন বিজেপিকে ভারতবর্ষ থেকে আমরা বিতাড়িত না করতে পারি, ততদিন রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে। বুথে খেলা হবে, সমস্ত জায়গায় খেলা হবে।

স্থানীয় সময় বুধবার (২১ জুলাই) তৃণমূলের শহীদ দিবস পালনকে কেন্দ্র করে এক ভার্চুয়াল সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই মন্তব্য করেন। এই দিবসের অনুষ্ঠান থেকে দলের কর্মীদের জন্য বছরের পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতে পেগাসাসের মাধ্যমে ফোনে আড়িপাতার প্রসঙ্গ টেনে মমতা বলেন, দেশে গণতন্ত্রের পরিবর্তে গোয়েন্দাগিরি চলছে। বিজেপির মগজে কেবল মরুভূমি ছাড়া আর কিছু নেই। ওরা মানবাধিকার কাকে বলে জানে না। শুধু ফোন ট্যাপ করলে আর গোয়েন্দাগিরি করলে সবকিছু হয় না।
তিনি বলেন, গরিব মানুষকে টাকা দেওয়ার বদলে আড়ি পাতায় টাকা খরচ করা হচ্ছে। কেউ কাউকে বিশ্বাস করতে পারছে না। মন্ত্রী, আমলা, বিরোধীদের নেতা, বিচারপতিদের ফোনে আড়ি পাতা হচ্ছে।
এ সময় তিনি বলেন, ‘পেগোসাস- ফেরোসাস, নরেন্দ্র মোদির নাভিশ্বাস।’
দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতির প্রসঙ্গ টেনে মমতা বলেন, কোভিডে ভ্যাকসিন নেই, মেডিসিন নেই, অক্সিজেন নেই! মারা গেলে গঙ্গা নদীতে লাশ ফেলে দেওয়া হচ্ছে। আর প্রধানমন্ত্রী বলছেন, উত্তর প্রদেশ হলো দেশের মধ্যে সবচেয়ে ভালো রাজ্য। কোনো লজ্জা করে না! একে তো ওষুধ দিচ্ছে না, ভ্যাকসিন দিচ্ছে না, এরপরে মারা গেলে শেষকৃত্য করতে দিচ্ছে না। মৃতদেহকে সম্মান না দিয়ে গঙ্গায় ভাসিয়ে দেওয়া হচ্ছে। কখনও বিহার লাশ তুলেছে, কখনও বাংলা তুলেছে। বাংলায় লাশ ভেসে এলে আমরা তাদের সসম্মানে শেষকৃত্য করার ব্যবস্থা করেছি।
সঠিক সময়ে ব্যবস্থা নিলে কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ ঠেকানো যেত মন্তব্য করে মমতা বলেন, আপনাদের চূড়ান্ত ব্যর্থতার জন্য ৪ লাখ মানুষ মারা গেছে।
এ সময় তিনি দলের নেতাকর্মীদের বিজেপির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে ক্ষমতা থেকে দলটিকে বিতাড়িত করার আহ্বান জানান। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here