অনলাইন ডেস্কঃ ঈদযাত্রায় সড়কপথে বেড়েছে চাপ। বাস কাউন্টারগুলোতে ঘরমুখী মানুষের উপচেপড়া ভিড়, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি। তবে নিয়ম মেনে শুক্রবারও (১৬ জুলাই) কমলাপুর থেকে ছেড়ে গেছে ট্রেন।

ঈদ যাত্রার দ্বিতীয় দিনে ঢাকার বাস কাউন্টারগুলো যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়। টিকিট পেতে মানুষের এই ভিড়ে স্বাস্থ্যবিধি পুরোপুরি উধাও। কাউন্টার থেকেও অধিকাংশ জায়গাতেই ছিল না স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী।

যাত্রীরা বলছেন, ঈদে কোরবানি দিচ্ছি, তাই বাড়ি যেতে হবে। কিন্তু এখানকার অবস্থা খুবই খারাপ, ধাক্কাধাক্কি অনেক। এমন পরিস্থিতিতে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষের নজরদারি আরও বাড়ানো উচিত।
আবার বাসের ভেতরেও কোনো জীবাণুনাশক স্প্রে করতে দেখা যায়নি। নিয়ম থাকলেও পাশাপাশি যাত্রী উঠানো হচ্ছে বাসগুলোতে। টিকিটের দাম দ্বিগুণ নেয়াসহ পাশাপাশি বসছেন যাত্রীরা।
যাত্রীরা জানান, প্রচুর ভিড় রয়েছে। গাদাগাদি করে টিকিট নিতে হচ্ছে। ভাড়া ৬০ শতাংশের কথা বলা হলেও বেশি রাখছে।  
এসবের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে দেখা গেছে বিআরটিএকে। স্বাস্থ্যবিধি না মানার যে অভিযোগগুলো আসে, সাধারণ যাত্রীদের কাছ থেকে আসা বিভিন্ন অভিযোগগুলো আসে, সেগুলো দেখার জন্যই এ অভিযান বলে জানান কর্মকর্তারা।
তবে নিয়ম মেনে চলেছে ট্রেন। কমলাপুর স্টেশনে ভেতরে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনের ভেতরে-বাইরে স্প্রে করা হয়। মাস্ক ছাড়া কাউকে প্রবেশও করতে দেওয়া হয়নি। এক আসন ফাঁকা রেখে বসছেন যাত্রী। যাত্রীরা জানান, সবকিছু সুন্দরভাবেই হচ্ছে।
স্টেশন ম্যানেজার জানান, সামনের দুই-তিনের ভিড়ের কথা মাথায় রেখে থাকবে বাড়তি ব্যবস্থাপনা।
২৩ জুলাই থেকে আবারো কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ হওয়ায় ঈদ যাত্রায় এবার ট্রেনের ফিরতি টিকিট মিলবে কেবল ২২ জুলাইয়ের। দেওয়া হবে ১৮ জুলাই সকাল থেকে। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here