অনলাইন ডেস্কঃ তেল-গ্যাসের ঘাটতি দূর করতে সৌদি আরবের সঙ্গে ঋণ বিষয়ক একটি চুক্তি সই করেছে পাকিস্তান। জেদ্দাভিত্তিক আইডিবির ট্রেডিং শাখা ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ট্রেড ফাইন্যান্স কর্পোরেশনের (আইটিএফসি) সঙ্গে এই চুক্তি হয়। সৌদি আরবভিত্তিক ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (আইডিবি) কাছ থেকে ৪.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ নিচ্ছে পাকিস্তান।

এশিয়া টাইমস জানিয়েছে, এরইমধ্যে এ বিষয়ে আগামী তিন বছর অপরিশোধিত তেল, পরিশোধিত পেট্রোলিয়াম পণ্য, তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) এবং শিল্প রাসায়নিক ইউরিয়া কেনার জন্য এই ঋণ ব্যবহার করা হবে।

এই ঋণ নেওয়ার ঘটনায় বিরোধী দলগুলি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন পিটিআই সরকারের অলসতা এবং অব্যবস্থাপনার সমালোচনা করেছে। বিদ্যুৎ পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সরকার গত সপ্তাহে প্রদেশগুলিতে পানি বণ্টন ১০ শতাংশ কমিয়ে দিয়েছে। পরিস্থিতির উন্নতি না হলে আরও কাটছাঁটের পরিকল্পনা করা হয়েছে।

সরকার গ্যাসের অভ্যন্তরীণ চাহিদা পূরণের জন্য রপ্তানি-বহির্ভূত শিল্প ইউনিট এবং সংকুচিত প্রাকৃতিক গ্যাস (সিএনজি) স্টেশনগুলিতে গ্যাস সরবরাহ স্থগিত করেছে। পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নাওয়াজ (পিএমএল-এন) নেতা এবং সাবেক অর্থমন্ত্রী মিফতাহ ইসমাইল বলেছেন, জ্বালানি সংকটের জন্য ইমরান খান সরকার সরাসরি দায়ী।

উল্লেখ্য, পানি প্রবাহের ঘাটতির কারণে জলবিদ্যুৎ উৎপাদন কমে গেছে। পাকিস্তান তার জলাধার থেকে প্রায় ৭,৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করে। সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here