অনলাইন ডেস্কঃ ভারতে নতুন করে কোনো মাস্টারকার্ড ইস্যু করা যাবে না বলে নির্দেশ দিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) বিবিসি’র খবরে বলা হয়েছে, ভারতের রিজার্ভ ব্যাংক মাস্টারকার্ডের বিরুদ্ধে তথ্য-সংরক্ষণ বিধান লঙ্ঘনের অভিযোগে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
এই নির্দেশনা কার্যকর হবে আগামী ২২ জুলাই থেকে। অর্থাৎ ২২ জুলাই থেকে ভারতীয় কোনো গ্রাহকের কাছে আর ডেবিট, ক্রেডিট বা প্রি-পেইড কোনো ধরনের কার্ডই ইস্যু করতে পারবে না মাস্টারকার্ড। তবে, এই নির্দেশনা কার্যকর হলেও বর্তমানে মাস্টারকার্ডধারী গ্রাহকদের ওপর কোনো প্রভাব পড়বে না বলেও নিশ্চিত করা হয়েছে।  
কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, বিদেশি কার্ড নেটওয়ার্ক ব্যবহারের ক্ষেত্রে ভারতীয়দের পেমেন্ট ডাটা সংরক্ষণ করতে হয়। যেন নিয়ন্ত্রক সংস্থা কোনো ধরনের বাধা ছাড়াই লেনদেন পর্যবেক্ষণ করতে পারে। কিন্তু মাস্টারকার্ড ২০১৮ সাল থেকে তথ্য সংরক্ষণের এ নীতিমালা মানছে না। তথ্য সংরক্ষণের এ নীতিমালা পরিপালনের জন্য মাস্টারকার্ডকে অনেক সময় দেয়ার পরও মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি তা নির্দেশনা অনুসরণ করেনি।
তবে এই সিদ্ধান্তের ব্যাপারে এখনও কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি মার্কিন এই প্রতিষ্ঠানটি।
বিবিসি’র ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছর ভারতে কার্ডের মাধ্যমে যে পরিমাণ লেনদেন করা হয়েছে মাস্টারকার্ডের মাধ্যমেই হয়ে ৩৩ শতাংশ। ২০১৯ সালে মাস্টারকার্ড ভারতে তাদের বাণিজ্যিক কার্যক্রম বৃদ্ধি করার জন্য ২০২৩ সালের মধ্যে এক বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করার ঘোষণা দিয়েছিল।
এর আগে চলতি বছরের শুরুর দিকে ভাতরে আমেরিকান এক্সপ্রেস ও ডিনার্স ক্লাব- কার্ড ইস্যুও বন্ধ করে দেয়া হয়। তাদের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ উঠেছিল। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here