অনলাইন ডেস্কঃ দেশব্যাপী এক কোটি ফেস মাস্কসহ ২ হাজার অক্সিজেন সিলিন্ডার, ২০০ হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা, ২০০ অক্সিজেন কন্সেন্ট্রেটর বিতরণ এবং বিভিন্ন হাসপাতালের সামনে অক্সিজেন বুথ স্থাপন কার্যক্রম শুরু করেছে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশন (এফবিসিসিআই)।

আজ মতিঝিলের ফেডারেশন ভবনে এফবিসিসিআই আয়োজিত দেশব্যাপী স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও চিকিৎসা সামগ্রী বিতরণ কর্মসূচি উদ্বোধন করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে অনলাইনে সংযুক্ত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ. রহমান এমপি। এফবিসিসিআই সভাপতি জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন সংগঠনটির সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু। ঢাকা চেম্বারের সভাপতি রিজওয়ান রহমান, মেট্রোপলিটন চেম্বারের সভাপতি নিহাদ কবির, এফবিসিসিআই’র সাবেক প্রথম সহ-সভাপতি মনোয়রা হাকিম আলী, বিসিআই’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রীতি চক্রবর্তী প্রমুখ। অনুষ্ঠানে দেশের ৬৪ জেলার চেম্বার ও অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ সংযুক্ত ছিলেন।

ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই সহসভাপতি এম এ মোমেন, আমিন হেলালী, হাবিব উল্লাহ ডন, সহ অন্যান্য পরিচালকবৃন্দ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক ও ই-কমার্স এসাসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর সভাপতি শমী কায়সার।

অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, দেশের প্রতিটি মানুষকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনতে আরও কিছু সময় লাগবে। এসময়ের মধ্যে সবাইকে মাস্ক পরিধান করতে হবে, পাশাপাশি ভ্যাকসিন কার্যক্রম চলবে। এফবিসিসিআইয়ের এ কার্যক্রমের মাধ্যমে ‘মানুষ মানুষের জন্য’- এ বার্তা বয়ে আনবে। মানুষ উৎসাহিত হবে। ব্যবসায়ীরা আজ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে, ভবিষ্যতেও দাঁড়াবে।

এফবিসিসিআই সভাপতি জসিম উদ্দিন বলেন, আমরা যেহেতু এখনও শতভাগ টিকার আওতায় আনতে পারিনি, তাই মাস্ক পরা, স্বাস্থ্যবিধিগুলো মেনে চলাসহ জনসচেতনতা সৃষ্টির কোনো বিকল্প নেই। জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি হলেই করোনা সংক্রমণ অনেকাংশে কমে আসবে; লকডাউনের মত অবস্থায় আমাদের যেতে হয় না। আমরা লক্ষ্য করেছি হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসা সামগ্রীর অভাব রয়েছে। দেশের নিম্ন আয়ের মানুষদের সহায়তা প্রদানে ৩২০০ কোটি টাকার নতুন প্রণোদনা প্যাকজে ঘোষণা করায় প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান এফবিসিসিআই সভাপতি। সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here