অনলাইন ডেস্কঃ বেশ কয়েকদিন ধরে অসুস্থ ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলসোনারো। গতকাল বুধবার তাকে প্রথম নিয়ে যাওয়া হয় দেশের একটি সেনা হাসপাতালে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাকে পাঠানো হয় সাও পাওলোর অন্য একটি হাসপাতালে। তার জরুরি অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হতে পারে বলে প্রেসিডেন্টের কার্যালয় জানিয়েছে।

জানা গেছে, গত ১০ দিন ধরে ক্রমাগত হেঁচকি উঠছে প্রেসিডেন্টের। দাঁতের একটি চিকিৎসার পরেই তার এই সমস্যা শুরু হয়। পরীক্ষা করে চিকিৎসকদের ধারণা, তার পাকস্থলীতে একটি ব্লক আছে। তার থেকেই এই ঘটনা ঘটছে। প্রয়োজনে অপারেশন করা হতে পারে। বলসোনারোর হেঁচকি ওঠার সঙ্গে হয়তো তার পেটে সার্জারির সঙ্গে সম্পর্ক থাকতে পারে। ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট পেট ব্যাথাতেও ভুগছেন। তবে এই মাসের শুরুতে হওয়া দাঁতের সার্জারির সঙ্গে হেঁচকি ওঠার সম্পর্ক থাকতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এদিকে, এক টুইটবার্তায় বলসোনারো বলেছেন, ঈশ্বরের চাইলে শিগগিরই তিনি ফিরে আসবেন। উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে নির্বাচনী প্রচারের সময় ছুরিকাঘাতে আহত হন জইর বলসোনারো। তার পর থেকেই উগ্র ডানপন্থী এই নেতার স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে।  ওই হামলায় গুরুতর আহত হলে বলসোনারোর শরীরের ৪০ শতাংশ রক্ত ঝরে যায়। ছুরিকাঘাতে আহত হওয়ার পর বেশ কয়েকটি সার্জারির মধ্য দিয়ে যেতে হয় তাকে। সূত্রঃ বিডি-প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here