অনলাইন ডেস্কঃ ইউরো শেষ। কিন্তু রয়ে গেছে রেশ। এবার ফুটবলপ্রেমীরা নির্বাচন করেছেন আসরের সেরা গোল। দিয়েছেন ভোট। সেরার মুকুট জয়ে ইউরো জয়ী ইতালি ইংল্যান্ডের কেউ নেই। বরং সবাইকে তাক লাগিয়ে ভোটের লড়াইয়ে সেরা হয়েছেন প্যাট্রিক শিক।

১৪ জুন ডি গ্রুপে চেক প্রজাতন্ত্র বনাম স্কটল্যান্ডের লড়াই। ফুটবলপ্রেমীদের চোখ তেমন একটা ছিল না এই ম্যাচের দিকে। কিন্তু কে জানত এই ম্যাচের দুটি গোলই আসর শেষে পাবে সেরা গোলের মর্যাদা। আসরে সামনে থেকে দলকে এগিয়ে নিয়েছেন প্যাট্রিক শিক। করেছেন মোট ৫টি গোল।

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ২-০ গোলের জয়ের সে ম্যাচে ৪২ ও ৫২ মিনিটে দুটি গোলই করেছিলেন তিনি। দ্বিতীয়ার্ধে স্কটল্যান্ড গোলরক্ষক চলে গিয়েছিলেন মাঝমাঠের কাছে। সুযোগটা লুফে নেন শিক। ৫০ গজ দূর থেকে করেন দাপুটে গোল। বিপদ আঁচ করেছিলেন বটে ডেভিড মার্শাল। কিন্তু ততক্ষণে বড্ড দেরি হয়ে গেছে। গোলের আনন্দে মেতে ওঠেন শিক। উয়েফার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রায় আট লাখ ফুটবলপ্রেমী এই গোলটিকে ভোট দিয়ে সেরা নির্বাচন করেছেন।
ফ্রান্স ২০১৬ সালের ইউরোর রানার্সআপ। তবে, এবার ফাইনালে ওঠা হয়নি ফরাসিদের। গড়া হয়নি রেকর্ড। কিন্তু আলোচনায় রয়ে গেছেন দলটির মিডফিল্ডার পল পগবা। ২৮ জুন নক আউট পর্বে সুইজারল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছিল ফ্রান্স। ৭৫ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে চমৎকার একটি গোল করেন পল পগবা। ৩-৩ সমতায় শেষ হওয়া ম্যাচে টাইব্রেকারে হেরে যায় ফ্রান্স। দল হারলেও পগবা জিতে নিয়েছেন সমর্থকদের মন। তার গোলটি পেয়েছেন দ্বিতীয় সেরা ভোট।
রাশিয়া বিশ্বকাপে আলো ছড়ালেও নিজের সম্ভাব্য শেষ ইউরোটা স্মরণীয় করে রাখতে পারেননি ক্রোয়েশিয়ার  লুকা মদ্রিচ। ডি গ্রুপে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ৬২ মিনিটে করা তার গোলটি পেয়েছে তৃতীয় সেরা ভোট। চার নম্বরে আছেন লরেন্সো ইনসিনিয়ে। কোয়ার্টার ফাইনালে বেলজিয়ামের বিপক্ষে জয়ের ম্যাচে ৪৪ মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন তিনি। সে গোলটি হয়েছে চতুর্থ। ৫ নম্বরে আছেন কেভিন ডি ব্রুইনা। ডেনমার্কের বিপক্ষে করা তার গোলটি আছে পঞ্চম স্থানে।
আসরের সর্বোচ্চ ৫টি গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। গেলবার ভাঙাচোরা দল নিয়েও পর্তুগালকে নিজেদের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় শিরোপা উহার দিয়েছিলেন সি আর সেভেন। এবার গোল পেলেও দল যেতে পারেননি বেশি দূর। ৫ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার পাওয়া রোনালদোর হাঙ্গেরির বিপক্ষে গ্রুপ পর্বে করা গোলটি আছে ষষ্ঠ স্থানে। সপ্তম স্থানে স্পেনের মোরাতা। আটে আছেন ডেনমার্কের ডামসগার্ড। নয় নম্বরে ইউক্রেনের ইয়ারমোলেঙ্কো। ১০ নম্বরে ইতালির ফ্রেদেরিকো চিয়েসা। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here