অনলাইন ডেস্কঃ ‘পাকিস্তান একটি ঘৃণিত ও বর্বর জাতি। কারণ মুক্তিযুদ্ধের সময় নারী নির্যাতন-ধর্ষণকে তারা (পাকিস্তান) জায়েজ বলেছিল। পাকিস্তান আমাদের পায়ের কাছে মাথা নথ করে আত্মসমর্পণ করেছে।এখনো তারা ষড়যন্ত্র করছে। এতে দেশবিরোধীরাও যুক্ত হচ্ছে।’

শুক্রবার নিউজ ব্রডকাস্টার্স অ্যালায়েন্স অব বাংলাদেশের (এনবিএ) এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

মন্ত্রী মোজাম্মেল হক বলেন, বাংলাদেশ আজ বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে। বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পৌঁছেছে। কিন্তু পাকিস্তান এক সময় আমাদের নিচু স্তরে রাখতে চেয়েছিল। জাতি হিসেবে তারা আমাদের দমিয়ে রাখতে চেয়েছিল। সামরিক বাহিনীতে বাঙালির সংখ্যা ছিল মাত্র ৭ শতাংশ। দীর্ঘ ২৩ বছর তারা আমাদের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন করেছে। অধিকার থেকে বঞ্চিত করেছে।

‘১৯৭১ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আমরা মুক্তিযুদ্ধ করেছি। যুদ্ধে পাকিস্তানিদের পরাজিত করেছি।’

মোজাম্মেল হক বলেন, আজ বাংলাদেশের নারীরা সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার থেকে শুরু করে বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীরা সর্বোচ্চ পর্যায়ে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি আরও বলেন, যমুনা গ্রুপের মতো এত বিশাল একটি গ্রুপের চেয়ারম্যান সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি। তার মেয়েরাও দক্ষতার সঙ্গে গ্রুপটি চালাচ্ছেন। নারীরা আরও এগিয়ে যাবে। মিডিয়ায় নারীদের জয়জয়কার। এনবিএ’র সভাপতিও একজন নারী। তিনি আরও বলেন, পাকিস্তান নারীদের অধিকার বঞ্চিত করছে। নারীদের ঘরে আটকে রাখছে।

সন্ধ্যায় বিশ্বের তৃতীয় ও এশিয়ার সর্ববৃহৎ শপিংমল যমুনা ফিউচার পার্কের ইস্ট কোর্টের লেভেল মাইনাস ওয়ানের জোন-ডি অট্রিয়ামে এনবিএ’র বিজয় মেলা ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করা হয়। এতে দেশাত্ববোধক গান, কবিতা আর লোকজ নাচ-গানের আয়োজন করা হয়।

এনবিএ’র সভাপতি মুমতাহীনা রীতুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন তথ্যসচিব মকবুল হোসেন, যমুনা গ্রুপের পরিচালক ড. মোহাম্মদ আলমগীর আলম, সিনিয়র সাংবাদিক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, রাশেদ কাঞ্চন প্রমুখ। আমন্ত্রিত অতিথিরা ছাড়াও যমুনা ফিউচার পার্কে আসা ক্রেতা-দর্শনার্থীরা অনুষ্ঠানটি উপভোগ করেন।

অনুষ্ঠানে দেশের বেসরকারি রেডিও স্টেশন ও টেলিভিশনের শতাধিক সংবাদ উপস্থাপক অংশ নেন। অনুষ্ঠানের শেষে দিকে জারি গান ও মনোজ্ঞ ফ্যাশন শো-অনুষ্ঠিত হয়। যমুনা টিভির সাংবাদিক আহমেদ রেজার আবৃত্তিসহ ১০ জন দেশাত্ববোধক গান পরিবেশন ও কবিতা আবৃত্তি করেন।

উল্লে­খ্য, ২০১১ সালের ৪ মার্চ এনবিএ’র যাত্রা শুরু হয়। যাত্রা শুরুর পর থেকে সংগঠনটি বিভিন্ন সময় শীতবস্তু, দরিদ্রদের মাঝে আর্থিক সহযোগিতাসহ খাবার বিতরণ করে আসছে। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here