অনলাইন ডেস্কঃ পঞ্চম ধাপে ৭০৭টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট কাল। কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম পৌঁছে দিতে সব প্রস্তুতি শেষ করেছে নির্বাচন কমিশন। সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে মোতায়েন করা হয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষীবাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য।

মানিকগঞ্জের দৌলতপুর ও হরিরামপুর উপজেলার ২২টি ইউনিয়ন পরিষদের জন্য নির্বাচনী সরঞ্জাম নিতে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে যান বিভিন্ন কেন্দ্রের প্রিজাইডিং ও রিটার্নিং কর্মকর্তারা। তাদের বুঝিয়ে দেওয়া হবে ব্যালটবাক্স ও ব্যালট পেপারসহ সব সরঞ্জাম। এখানে ১৯২ কেন্দ্রের মধ্যে ৩৫টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করায় নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন মানিকগঞ্জ পুলিশ সুপার গোলাম আজাদ খান।


পিরোজপুরের দুটি উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে নির্বাচনকে ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে প্রশাসন। ৪৬টি কেন্দ্রের দুই শতাধিক বুথের জন্য পাঠানো হয় ইভিএম মেশিন, ব্যালট বাক্সসহ প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম।

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা হলরুম থেকে নির্বাচনী সামগ্রী বুঝে নেন প্রিজাইডিং কর্মকর্তারা। এ উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহণ হবে একশ ৩০টি কেন্দ্রে। এসব কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিশেষ নজরদারি বাড়ানো হয়েছে বলে জানান গাজীপুর পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ।
ভোলা সদর উপজেলার ১২ ইউনিয়নের মধ্যে ৩টিতে হবে ইভিএমএ ভোটগ্রহণ। সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে ৩ হাজার ৮০০ আইনশৃঙ্খলা রক্ষীবাহিনীর সদস্য। এছাড়া ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু ও শৈলকুপার ২০টি ইউনিয়নেও কড়া নিরাপত্তায় পৌঁছানো হয় ইভিএম মেশিনসহ নির্বাচনী সরঞ্জাম।
গত বছর ২১ জুন ও ২০ সেপ্টেম্বর প্রথম ধাপের দুই দফায় ৩৬৯টি, ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপে ৮৩৩টি, ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপে এক হাজার এবং ২৩ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপে ৮৪০টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here