অনলাইন ডেস্কঃ বাংলাদেশ ক্রিকেটে দীর্ঘদিন অবদান রেখে দলের পারফরমেন্সকে বিশ্বমানে উন্নীত করার জন্য মাশরাফী, সাকিব, তামিম, মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহকে একত্রে বলা হয় ‘পঞ্চপাণ্ডব’। তবে এবার সাকিব-তামিমদের শৈশবের কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন বললেন, পঞ্চপাণ্ডবের কোনো অর্জন নেই, দেশকে তো তারা কোনো ট্রফি এনে দিতে পারেনি।

শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) যমুনা টেলিভিশনের স্যাটারডে নাইট স্পোর্টস অনুষ্ঠানের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন সালাউদ্দিন।

মোহাম্মদ সালাউদ্দিন বলেন, দেখুন, আমাদের যেসব তারকা ক্রিকেটার খেলোয়াড়ি জীবনের শেষ পর্যায়ে আছেন, কিছুদিনের মধ্যে অবসরে যাবেন, তাদের আসলে অর্জনটা কী? তাদের তো কোনো অর্জন নেই। তারা দেশকে কী দিয়েছে? হ্যাঁ, এটা ঠিক যে তাদের ব্যক্তিগত অনেক রেকর্ড আছে তবে দলীয় জায়গায় তাদের অর্জনের থলি শূন্য। তারা দেশকে এমন কিছুই দিতে পারেনি যে কারণে আমরা গর্বিত হতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, যেহেতু তাদের অবসরের সময় ঘনিয়ে আসছে তাই আমাদের উচিত তাদের শূন্যস্থান ভরাটের চিন্তা বাদ দেয়া। বরং আমাদের ভাবনায় থাকা উচিত কীভাবে তাদের চেয়েও ভালো খেলোয়াড় তৈরি করা যায়। কারণ, তাদের শূন্যস্থান ভরাট করলে খুব বেশি লাভ হবে না। কিন্তু যদি তাদের চেয়ে ভালো খেলোয়াড় তৈরি করার দিকে মনোনিবেশ করা যায় তাহলে হয়তো আগামীতে এশিয়া কাপ, বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ তৈরি হবে। তাই ক্রিকেট বোর্ডের উচিত যারা বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মানসিকতা রাখে তাদেরকে তুলে নিয়ে আসা।

সাকিব-তামিমদের শৈশবের কোচ সালাউদ্দিনের এমন মন্তব্য নতুন করে ঘি ঢেলেছে সম্প্রতি বাংলাদেশ ক্রিকেটে ‘পঞ্চপাণ্ডব’ নিয়ে তৈরি হওয়া বিতর্কে। যার শুরুটা হয় সাকিব আল হাসানের এক একান্ত সাক্ষাৎকারকে ঘিরে। যেখানে স্পষ্ট হয় যে, পঞ্চপাণ্ডবের মাঝে উপরে উপরে খাতির থাকলেও ভেতরে রয়েছে সমস্যা। সাক্ষাৎকারে সাকিব স্পষ্ট করে বলেন, প্রথম পাণ্ডব তিনি, এরপর বাকিরা। এমনকি সাংবাদিক যখন বলেন, বয়স, অভিজ্ঞতা কিংবা অধিনায়ক হিসেবে সাফল্যের নিরিখে মাশরাফীর নামটা তো আসার কথা, তখনই বোমা ছুড়েন সাকিব। বলেন, আমার কাছে তা মনে হয় না।

ওই সাক্ষাৎকারে তামিম ইকবালের সাথে সাকিব আল হাসানের সম্পর্কের অবনতির প্রসঙ্গও উঠে আসে। যেখানে সাকিবকে জিজ্ঞেস করা হয়, দু’জন আগে সবচেয়ে ভালো বন্ধু ছিলেন। আর এখন এই দুই ক্রিকেটারের সম্পর্ককে কোনোভাবেই ভালো বলা যায় না। এই ঘটনা বাংলাদেশ ক্রিকেটের ক্ষতির কারণ হয়েছে কিনা তা সাকিবকে জিজ্ঞেস করা হলে জবাবে তিনি বলেন, ক্রিকেটারদের কাজ কেবল খেলা। যার যা কাজ সে সেটা করতে পারলেই আর এসব নিয়ে কথা ওঠে না। এমনকি সাকিব নিজেও স্বীকার করে নিয়েছেন তাদের মাঝে উপরে উপরে খুব খাতির, ভেতরে ভেতরে সমস্যা।

এখানেই শেষ নয়, ইদানিং বাংলাদেশের ক্রিকেটের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের বিরুদ্ধেও অভিযোগ শোনা যাচ্ছে। তিনি নাকি মুশফিকুর রহিমই ও সাকিব আল হাসানের জায়গাটাও টালমাটাল করতে চান। পরিবর্তে এক সময়ে তার সাথে ওপেনিং করা ​ইমরুল কায়েসকে চান তার দলে। শোনা যাচ্ছে, তামিমের কথামতোই নাকি এখন ঘরোয়া ক্রিকেটে চার নম্বরে ব্যাট করেন ইমরুল। আর এতেই তৈরি হয়েছে প্রশ্ন।

সালাউদ্দিনের মন্তব্য হোক আর সাকিবের সাক্ষাৎকার বাংলাদেশ ক্রিকেটের সময়টা যে একেবারে খারাপ যাচ্ছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। সবশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভরাডুবি ও পাকিস্তানের কাছে ধবলধোলাই হওয়ার পর বিসিবির যে দল নিয়ে এখন নতুন করে ভাবার সময় এসেছে সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here