অনলাইন ডেস্কঃ প্রায় ৬৬ মিলিয়ন বছরের পুরনো ডাইনোসরের একটি ভ্রূণ আবিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন চীনের বিজ্ঞানীরা।  ভ্রূণটি দক্ষিণ চীনের গাঞ্জোতে সংরক্ষিত অবস্থায় পাওয়া গেছে। গবেষকরা অনুমান করছেন, ভ্রূণটি প্রায় ৬৬ মিলিয়ন বছরের পুরনো।

বুধবার (২২ ডিসেম্বর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ভ্রূণটি মুরগির ডিমের মতো।  ডিম থেকে বাচ্চা ফোটানোর জন্য প্রস্তুত ছিল। এটি একটি দাঁতহীন থেরোপড ডাইনোসর বা ওভিরাপ্টোরোসর বলে বিশ্বাস করা হয়। এর নাম রাখা হয়েছে ‘বেবি ইংলিয়াং’।

এ ব্যাপারে গবেষক ড. ফিওন ওয়াইসুম মা বলেন, এটি ইতিহাসে পাওয়া সেরা ডাইনোসর ভ্রূণ। যা ইঙ্গিত দেয়, আধুনিক পাখিদের মধ্যে এ ধরনের আচরণ প্রথম তাদের ডাইনোসর পূর্ব-পুরুষদের মধ্যে বিকশিত হয়েছিল।

আবিষ্কারটি গবেষকদের ডাইনোসর এবং আধুনিক পাখির মধ্যে যোগসূত্র সম্পর্কে আরও বেশি জানার সুযোগ দিয়েছে।

জীবাশ্মটি দেখায় যে, ভ্রূণটি টাকিং নামে পরিচিত কুঁকানো অবস্থানে ছিল। যা পাখিদের ডিম ফোটার কিছুক্ষণ আগে দেখা যায়।

ওভিরাপ্টোরোসরস অর্থ ডিম চোর টিকটিকি বা পালকযুক্ত ডাইনোসর। যারা ক্রিটেসিয়াস যুগের শেষের দিকে ১শ মিলিয়ন থেকে প্রায় ৬৬ মিলিয়ন বছর আগে বর্তমান এশিয়া এবং উত্তর আমেরিকাতে বাস করতো।

শিশু ইংলিয়াং মাথা থেকে লেজ পর্যন্ত ১০ দশমিক ৬ ইঞ্চি (২৭ সেমি) লম্বা। এটি চীনের স্টোন নেচার হিস্ট্রি মিউজিয়ামে একটি ৬ দশমিক ৭ ইঞ্চি লম্বা ডিমের ভেতরে বিশ্রাম নিচ্ছে। ২০০০ সালে ডিমটি প্রথম উন্মোচিত হয়েছিল। এরপর ১০ বছরের জন্য এটিকে স্টোরেজে সংরক্ষণ করে রাখা হয়। সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here