অনলাইন ডেস্কঃ করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে স্বল্পআয়ের দেশগুলোকে ৯৩ বিলিয়ন বা ৯৩০০ কোটি মার্কিন ডলারের বিশেষ আর্থিক সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) বিশ্বব্যাংকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। ওয়াশিংটনে সংস্থাটির প্রধান কার্যালয়ে ইতোমধ্যেই এ প্যাকেজের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সংস্থাটি জানায়, বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৭৪টি স্বল্প আয়ের দেশের জন্য ৯৩০০ কোটি মার্কিন ডলারের অর্থসহায়তা বরাদ্দ ঘোষণা করেছে বিশ্বব্যাংক। এটিই এ পর্যন্ত বিশ্ব ব্যাংকের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন অ্যাসোসিয়েশনের (আইডিএ) সর্বোচ্চ অর্থ সহায়তা। বরাদ্দকৃত তহবিলের ২৩৫০ কোটি ডলার বিশ্বব্যাংক দিচ্ছে উচ্চ ও মধ্যম আয়ের ৪৮টি দেশকে।

দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশ, ভুটান, মালদ্বীপ, নেপাল, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান আইডিএ’র এ তহবিল পেতে যাচ্ছে। আইডিএ’র ঋণের শর্ত খুবই রেয়াতযোগ্য। অর্থাৎ ঋণের এ অর্থে সুদ খুবই কম বা পুরোপুরি শূন্য থাকে। আর ঋণের শর্তগুলো নির্ধারিত হয় প্রাপক দেশগুলোর ঋণ সঙ্কটের ঝুঁকি, মাথাপিছু আয় এবং ঋণ পাওয়ার যোগ্যতার প্রেক্ষিতে। এক্ষেত্রে ‘ব্লেন্ড ক্রেডিট’ শর্তে আইডিএ থেকে অর্থ পাবে বাংলাদেশও।

বিশ্বব্যাংক আরও জানায়, এ তহবিল দেশগুলোকে মহামারি, অর্থনৈতিক সঙ্কট এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ ভবিষ্যতের সঙ্কট মোকাবেলায় আরও প্রস্তুত হতে সহায়তা করবে। বিশ্বজুড়ে মোট ৭৪টি দেশ এ অর্থসহায়তা পেলেও তহবিলে প্রায় ৭০ শতাংশই যাবে আফ্রিকা মহাদেশে।

বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ডেভিড মালপাস বলেছেন, করোনা পরবর্তী উন্নয়ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা এবং বিশ্বজুড়ে মানুষের জীবনমানের উন্নয়নে আইডিএ’র অংশীদাররা আস্থা রাখায় আমরা কৃতজ্ঞ। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here