অনলাইন ডেস্কঃ ব্যাকটেরিয়ার এক নতুন প্রজাতি আবিস্কার করেছেন সিঙ্গাপুরের গবেষকরা, মানবদেহের ত্বকের ক্ষত থেকে এই ব্যাকটেরিয়ার উদ্ভব বলে জানিয়েছেন তারা। শুধু আবিস্কারই না ব্যাকটেরিয়ার নামটি নিজেদের দেশের নামেই রেখেছেন এ গবেষকরা।

সিঙ্গাপুর ভিত্তিক পত্রিকা দ্য স্ট্রেইটস টাইম তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, নতুন এ ব্যাকটেরিয়া নিয়ে ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ সিস্টেম্যাটিক অ্যান্ড ইভল্যুশনারি মাইক্রোবায়োলজি সাময়িকীতে গৎ অক্টোবরে একটি গবেষণা প্রকাশিত হয়। সেখানে বলা হয়েছে, নতুন ব্যাকটেরিয়া ‘সিঙ্গাপুর’ হলো স্ট্যাফিলোকোকাস অ্যারিয়াসের একটি অংশ যার ফলে ত্বকে ইনফেকশন থেকে শুরু হয়ে রক্তে সৃষ্টি করতে পারে মারাত্মক ইনফেকশন যা থেকে হতে পারে মৃত্যু।

সিঙ্গাপুরের ন্যাশনাল সেন্টার ফর ইনফেকশাস ডিজিজের ন্যাশনাল পাবলিক হেলথ ল্যাবরেটরির পরিচালক সহযোগী অধ্যাপক রেমন্ড লিন বলেন, যে কেউ জীবনের যে কোনো পর্যায়ে এ ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত হতে পারেন।

নতুন এ ব্যাকটেরিয়াকে চিহ্নিত করতে সিঙ্গাপুরের ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হসপিটাল, ন্যাশনাল সেন্টার ফর ইনফেকশাস ডিজিজ ও সিঙ্গাপুর জেনারেল হসপিটাল ২০১৯ সালের এপ্রিল থেকে ২০২০ সালের জুলাই মাস পর্যন্ত এ ব্যাকটেরিয়ার বিচ্ছিন্নতা নিয়ে গবেষণা করেছেন। সবগুলোর জেনোম সিকুয়েন্স করে দেখা গিয়েছে যে, ৪৩ টি মিউটেশনের মধ্যে ৬টির মিউটেশন বাকি ৩৭টির চেয়ে আলাদা। এ ৬টিকেই নতুন সিঙ্গাপুর ব্যাকটেরিয়া হিসেবে চিহ্নিত করেছেন গবেষকরা।

প্রোফেসর লিন বলেন, ব্যাকটেরিয়ার এই প্রজাতিটিকে কেউ আগে লক্ষ্য করেনি। অথচ এটা দীর্ঘদিন ধরেই রয়েছে। নতুন এ ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে লড়তে অ্যান্টিবায়োটিক কতটুকু কার্যকর হবে তা নিয়ে গবেষণা চলছে বলে জানান তিনি। তবে নতুন এ ব্যাকটেরিয়া সম্পর্কে জানতে স্থানীয়  ও আন্তজার্তিকভাবে আরও তথ্য প্রয়োজন বলে জানান তিনি। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here