অনলাইন ডেস্কঃ সৌদি আরবে জুমার খুতবায় তাবলিগ জামাতের সমালোচনার নির্দেশনার বিষয়ে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনটির আমির আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা সাজিদুর রহমান এ প্রতিবাদ জানান।

বিবৃতিতে তারা বলেন, তাবলিগ জামাত বিশ্বব্যাপী একটি অরাজনৈতিক, নির্ভেজাল, দাওয়াতি জামাত। কিন্তু বর্তমানে সৌদি সরকার এই জামাতের বিরুদ্ধে কবর পূজা, শিরক বা উগ্রবাদের যে অপবাদ দিচ্ছে তা আমাদের মতে জঘন্য মিথ্যা অপবাদ ছাড়া আর কিছু নয়।

হেফাজত নেতারা বলেন, তাবলিগ জামাতের প্রতিষ্ঠাতা মাওলানা ইলিয়াস (রহ.) সহ প্রায় সব মুরব্বি দ্বীনের দাঈ, তাওহীদের বার্তাবাহক ছিলেন। বিদয়াত-কুসংস্কার থেকে অনেক দূরে থাকতেন। তাদের অনেকে হাদিস গ্রন্থের বড় বড় ব্যাখ্যাকারও বটে।

হেফাজত নেতারা আরও বলেন, মূলত কবর পূজা, শিরক বিদয়াত ও উগ্রবাদের সঙ্গে এদের কোনো দূর সম্পর্কও নেই। তাবলিগ জামাত সম্পর্কে ভালোভাবে জানা না থাকার কারণে এমনটা হয়েছে বলে আমাদের মনে হচ্ছে। সৌদি সরকারের কাছে আমাদের অনুরোধ, তারা যেন বিষয়টি খতিয়ে দেখে এবং এমন কোনো সিদ্ধান্ত না নেয়, যা তাদের ন্যায়বোধকে বিশ্ব দরবারে প্রশ্নবিদ্ধ করবে।

প্রসঙ্গত, সৌদি আরবের ইসলামিক অ্যাফেয়ার্স দপ্তরের মন্ত্রী ডা. আব্দুল লতিফ আল শাইখের জারি করা এক নির্দেশনায় জুমার খুতবায় তাবলিগ জামাতের বিরুদ্ধে কথা বলতে বলা হয়। তাবলিগ জামাত নিয়ে মানুষকে সতর্ক করতে মসজিদের ইমামদের নির্দেশনা দেওয়া হয় এতে।

সৌদির ইসলামিক অ্যাফেয়ার্স দপ্তরের এক টুইটে মন্ত্রণালয় কর্তৃক লিখিত আরবি খুতবাতে তাবলিগ জামাতের কাজের নিন্দা করা হয়েছে। পাশাপাশি এ জামাতের ওপর দেওয়া হয়েছে কিছু অভিযোগ।

সৌদি সরকারের ইসলামিক অ্যাফেয়ার্স দপ্তরের এমন নির্দেশনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলিম স্কলাররা। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here