অনলাইন ডেস্কঃ ইউরোপে অভিবাসন প্রত্যাশীদের সঙ্গে আচরণের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস। তিনি বলেন, অভিবাসন প্রত্যাশীদের সঙ্গে স্বার্থমূলক ও জাতীয়তাবাদী আচরণ করা হচ্ছে। একইসঙ্গে অভিবাসীদের রাজনৈতিক প্রচারণার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন পোপ ফ্রান্সিস।

রোববার (৫ ডিসেম্বর) গ্রিকের লেসবসে দ্বীপের একটি শরণার্থী শিবির পরিদর্শনে যান ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস। তাকে কাছে পেয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন অভিবাসনপ্রত্যাশীরা।

পরে এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে পোপ বলেন, অনেকটা অসহায় হয়েই শান্তির খোঁজে ইউরোপের দিকে ধাবিত হচ্ছে অভিবাসনপ্রত্যাশীরা। কিন্তু তাদের সঙ্গে স্বাভাবিক আচরণ করছে না দেশগুলো। উল্টো নানা বিপদের দিকে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে।

এ সময় ইউরোপের দেশগুলোর এমন আচরণের নিন্দা জানিয়ে, পরিস্থিতির শিকার হওয়া মানুষদের শাস্তি না দিয়ে অভিবাসী সংকটের পেছনে কারণগুলো বের করার আহ্বান জানান পোপ। একইসঙ্গে শরণার্থীদের ঢল ঠেকাতে ইউরোপের দেশগুলোর দেয়াল নির্মাণের তীব্র সমালোচনা করেন তিনি।

পোপ বলেন, আমি এসেছি অভিবাসীদের কথা শুনতে। তাদের প্রতি যে নির্মম আচরণ করা হচ্ছে তা প্রত্যক্ষ করতে। গরিব মানুষদের রাজনৈতিক হাতিয়ারের শিকার বানোনা ঠিক না। এসব বাদ দিয়ে সদস্যার মূল উৎপাটন করা উচিত।

গতমাসে ইংলিশ চ্যানের পাড়ি দিয়ে ফ্রান্স থেকে ব্রিটেন যাওয়ার পথে নৌকাডুবে ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়াও বেলারুশ পোল্যান্ড সীমান্তে মানবেতর জীবনযাপন করছেন শত শত অভিবাসনপ্রত্যাশী। এমন অবস্থায় অভিবাসীদের পক্ষে অবস্থান নিলেন পোপ। সূত্র: সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here