অনলাইন ডেস্কঃ শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। এ ম্যাচে বাংলাদেশের জার্সিতে অভিষেক হতে পারে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী মাহমুদুল হাসান জয়ের। প্রথম টেস্টে জয় তুলে নিয়ে এরই মধ্যে সিরিজে এগিয়ে আছে পাকিস্তান। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরু হবে সকাল ১০টায়।

প্রথম টেস্টে দলের টপ অর্ডার ব্যাটিং নিয়ে বেশ ভুগতে হয়েছে বাংলাদেশকে। দুই ইনিংস মিলে প্রথম চার ব্যাটসম্যান তুলেছিলেন মাত্র ৬৭ রান। তাই ঢাকা টেস্টের আগে ব্যাটিং বেশি মনোযোগ ছিল বাংলাদেশের। দলের জন্য বাড়তি স্বস্তি সাকিব আল হাসান ও তাসকিন আহমেদ।

ইনজুরি কাটিয়ে ফিরেছেন সাকিব আল হাসান ও তাসকিন। এ ম্যাচে একাদশে ফিরছেন এই দুজনই। অসুস্থতার জন্য ছিটকে গেছেন সাইফ হাসান। তার পরিবর্তে মাহমুদুল হাসান জয়ের অভিষেকের প্রবল সম্ভাবনা আছে। অন্যদিকে সিরিজে এগিয়ে থাকায় পাকিস্তান দল বেশ নির্ভার। ছন্দে আছে দলের দুই ওপেনার। প্রথম টেস্টের ধারাবাহিকতায় ঢাকাতেও তারা জয় তুলে নিতে চাইবে।
প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৮ উইকেটে জিতে পাকিস্তান। বাংলাদেশের দেওয়া ২০২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় পাকিস্তান। পাকিস্তানের হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে অর্ধশতকের দেখা পান ওপেনার আবিদ আলি এবং আবদুল্লাহ শফিক।
দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ অলআউট হয় ১৫৭ রানে, মাত্র ২৫ রানের মাথায় চারটি উইকেট পড়ে যাওয়ার পর দ্রুত গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কা জেগেছিল। কিন্তু সেখান থেকে দলকে টেনে তোলেন লিটন-রাব্বিরা। তবে তারাও বাংলাদেশকে বড় সংগ্রহ এনে দিতে পারেনি। প্রথম ইনিংসে ১১৪ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে বিপদে দলের হাল ধরেছিলেন, দ্বিতীয় ইনিংসে ৮৯ বলে খেলেন ৫৯ রানের ইনিংস। রাব্বি করেন ৩৬ রান।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের হয়ে সেঞ্চুরি করেছিলেন লিটন, বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৩৩০ রান। পাকিস্তানের প্রথম ইনিংসে শতকের দেখা পান আবিদ আলি, দল অলআউট হয় ২৮৬ রানে। আবিদ আলি করেন ১৩৩ রান। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here