অনলাইন ডেস্কঃ পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে পেসার তাসকিন আহমেদের খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে। সাকিব ফিরলেও এ ম্যাচে তাসকিন নাও খেলতে পারেন।

ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) তাসকিনের ব্যাপারে এমন তথ্য দেন বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক।

সংবাদ সম্মেলনে মুমিনুল বলেন, তাসকিন এই ম্যাচ খেলবে কি না তা জানার জন্য কাল (শনিবার) পর্যন্ত অপেক্ষা করা লাগবে। আরেকটু দেখে হয়তো সিদ্ধান্ত নিতে পারব। তবে আমার মনে হয় সে নিউজিল্যান্ড সফরে খেলার জন্যই বেশি প্রস্তুত।
তাসকিনকে নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকলেও পাকিস্তানের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে অভিষেক হতে পারে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে বিশ্বকাপ জয়ী মাহমুদুল হাসান জয়ের। কেননা প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের টপ অর্ডার দারুণ ভোগেছে। দুই ইনিংস মিলে প্রথম চার ব্যাটসম্যান তুলেছিলেন মাত্র ৬৭ রান।
ইনজুরি কাটিয়ে এ ম্যাচে ফেরার কথা সাকিব আল হাসান ও তাসকিনের। কিন্তু সংবাদ সম্মেলনে ভিন্ন সুর দিলেন মুমিনুল। অন্যদিকে অসুস্থতার জন্য ছিটকে গেছেন সাইফ হাসান। তার পরিবর্তে মাহমুদুল হাসান জয়ের অভিষেকের প্রবল সম্ভাবনা আছে। সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় পাকিস্তান দল বেশ নির্ভার। ছন্দে আছে দলের দুই ওপেনার। প্রথম টেস্টের ধারাবাহিকতায় ঢাকাতেও তারা জয় তুলে নিতে চাইবে।
প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৮ উইকেটে জিতে পাকিস্তান। বাংলাদেশের দেওয়া ২০২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় পাকিস্তান। পাকিস্তানের হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে অর্ধশতকের দেখা পান ওপেনার আবিদ আলি এবং আবদুল্লাহ শফিক।
দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ অলআউট হয় ১৫৭ রানে, মাত্র ২৫ রানের মাথায় চারটি উইকেট পড়ে যাওয়ার পর দ্রুত গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কা জেগেছিল। কিন্তু সেখান থেকে দলকে টেনে তোলেন লিটন-রাব্বিরা। তবে তারাও বাংলাদেশকে বড় সংগ্রহ এনে দিতে পারেনি। প্রথম ইনিংসে ১১৪ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে বিপদে দলের হাল ধরেছিলেন, দ্বিতীয় ইনিংসে ৮৯ বলে খেলেন ৫৯ রানের ইনিংস। রাব্বি করেন ৩৬ রান।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের হয়ে সেঞ্চুরি করেছিলেন লিটন, বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৩৩০ রান। পাকিস্তানের প্রথম ইনিংসে শতকের দেখা পান আবিদ আলি, দল অলআউট হয় ২৮৬ রানে। আবিদ আলি করেন ১৩৩ রান। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here