অনলাইন ডেস্কঃ লক্ষ্মীপুর জেলা কারাগারে বসেই এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে জালিস মাহমুদ নামে এক পরীক্ষার্থী। জালিস অস্ত্র মামলার আসামি।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে কারাগারে বসেই পদার্থবিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) প্রথমপত্র পরীক্ষা দেয়। জেলকোড নিয়ম মেনেই ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে সে পরীক্ষা দিচ্ছে।

এ ছাড়া কারাগারে বসে আরও চার আসামি এইচএসসি দেবে ৫ ডিসেম্বর। সেদিন তারা যুক্তিবিদ্যা পরীক্ষায় অংশ নেবে।

জালিস রামগঞ্জ উপজেলার সাউদেরখিল গ্রামের বাসিন্দা ও রামগঞ্জ মডেল কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের পরীক্ষার্থী। অন্যরা হলেন— উপজেলার রতনপুর গ্রামের মোহাম্মদ তাইয়ুব, হাতিপুরের ইফতেখার আহমেদ ফয়সাল, দরবেশপুর গ্রামের তাহমুন হোসেন মামুন, নোয়াগাঁওয়ের ফজলে রাব্বি। তারা একই কলেজের মানবিক বিভাগের ছাত্র।

লক্ষ্মীপুর কারাগারের জেলার শাখাওয়াত হোসেন বলেন, ছয় পরীক্ষার্থীই অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলার আসামি। এর মধ্যে একজন সকালে পরীক্ষায় বসেছে। জেলকোড নিয়ম মেনেই ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে পরীক্ষা হচ্ছে। বাকিদের পরীক্ষা ৫ ডিসেম্বর।

রামগঞ্জ থানা পুলিশ জানিয়েছে, নির্বাচন উপলক্ষ্যে ২৭ নভেম্বর দিবাগত গভীর রাতে র্যাব-পুলিশ যৌথ টহলকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মধ্য ভাদুর গ্রামের যুগিবাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এতে পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শাহ আলম সিদ্দিকী জীবন, ছাত্রলীগ নেতা পিজু ও ওই ৫ পরীক্ষার্থীসহ ৩১ জনকে একটি এলজি, বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রসহ আটক করা হয়।

রামগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন, অস্ত্রসহ আটক ৩১ জনের বিরুদ্ধে র‌্যাবের পক্ষ থেকে এজাহার দাখিল করা হয়। পরে তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তারা বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here