অনলাইন ডেস্কঃ জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) খেলোয়াড় শ্রেণিতে সর্বোচ্চ আয়কর প্রদানকারী নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ট্যাক্সকার্ড ও সম্মাননা পাওয়ার পর বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ট্যাক্সকার্ড ও সম্মাননা দেয় জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ১৪১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ট্যাক্স কার্ড ও সম্মাননা প্রদান করা হয়।

রিয়াদ ট্যাক্সকার্ড ও সম্মাননা পেয়েছেন খেলোয়াড় শ্রেণিতে। এই ক্যাটাগরিতে তিনি প্রথম হয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ফ্লাটফর্ম ফেসবুকে তিনি লেখেন, এই পুরস্কার পেয়ে সম্মানিত হয়েছি। এটা আমার জন্য খুশির বিষয়, ধন্যবাদ।
পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থ আ হ ম মুস্তফা কামাল ও এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন।
এর আগে জেলা এবং সিটি কর্পোরেশন পর্যায়ে ৫২৫ জন সেরা করদাতার তালিকা প্রকাশ করে এনবিআর। ২০১৬ সাল থেকে জাতীয় পর্যায়ের পাশাপাশি জেলা পর্যায়েও সেরা করদাতাদের সম্মাননা দেওয়া হচ্ছে। প্রতিবছর কর মেলার সময় সর্বোচ্চ করদাতাদের এই সম্মাননা দেওয়া হয়। কিন্তু এবার করোনার কারণে কর মেলা হয়নি। সে জন্য কর অঞ্চলগুলোতে মেলার পরিবেশ সৃষ্টি করা হয়েছে। আর সেরা করদাতাদের পুরস্কার দেওয়ার জন্য সীমিত পরিসরে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
ট্যাক্স কার্ডের মেয়াদ থাকবে এক বছর। কার্ডপ্রাপ্তরা বিভিন্ন ধরনের রাষ্ট্রীয় সুবিধা পাবেন। ট্যাক্স কার্ডধারীরা বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পাবেন। সড়ক, বিমান, নদীপথে ভ্রমণে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকিট পাবেন। হোটেল-রেস্তোরাঁয় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সেবা পাবেন। বিমানবন্দরে ভিআইপি লাউঞ্জ ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। চিকিৎসায় হাসপাতালে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শয্যা সুবিধা পাবেন।
এছাড়া স্ত্রী-স্বামী, নির্ভরশীল পুত্র-কন্যা নিজেদের চিকিৎসার জন্য সরকারি হাসপাতালে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কেবিন সুবিধা পাবেন। বিমানবন্দরে সিআইপি লাউঞ্জ ব্যবহার এবং তারকা হোটেলসহ সব আবাসিক হোটেলে বুকিং পাওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন তারা। সূত্রঃ সময় নিউজ 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here