অনলাইন ডেস্কঃ তালেবানের আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণের একশ দিন পার হয়েছে। এই সময়ে আফগানিস্তানের সামগ্রিক পরিস্থিতি কেমন ছিল সে বিষয়ে বিবিসি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে দেশটির অর্থনৈতিক, নিরাপত্তা, নারী শিক্ষা, স্বাস্থ্য সংকটের বর্তমান চিত্র উঠে এসেছে। তালেবান ক্ষমতায় আসার পর বেশ কিছু প্রতিশ্রুতি দিলেও তা রাখছে না বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। তালেবান শাসনামলে তাদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার বলেও ক্ষোভ প্রকাশ করেন তারা।

আফগানিস্তানে টানা কয়েক মাস সরকারি বাহিনীর সঙ্গে যুদ্ধের পর গেল ১৫ আগস্ট রাজধানী কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। দেশটিতে তাদের ক্ষমতা দখলের একশ দিন হয়েছে। প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানিকে হটিয়ে পুনরায় ক্ষমতা নেওয়া তালেবানের শাসনব্যবস্থা নিয়ে কি ভাবছেন স্থানীয়রা, এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি।

স্থানীয়দের দাবি, তালেবান ক্ষমতায় আসার পর আফগানিস্তানের সামগ্রিক পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে। আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি না পাওয়ায় দেশটিতে বিদেশি সহায়তাও বন্ধ হয়ে গেছে। এতে চরম মন্দায় দেশটির অর্থনীতি। কর্মস্থানের সুযোগ হারানোয় দিশেহারা দেশটির শ্রমিক ও দরিদ্র জনগোষ্ঠী।

তারা বলেন, গেল একশ দিনে আমরা খুব বাজে সময় কাটিয়েছি। আমরা বেতন পাচ্ছি না। অহরহ বোমা হামলার ঘটনা ঘটছে। এতে নিরাপত্তহীনতায় ভুগছি। আমাদের মেয়ে শিশুরা স্কুলে যেতে পারছে না। সবমিলিয়ে আমরা দুশ্চিন্তায় রয়েছি।

দেশটিতে বর্তমানে নিরাপত্তার বিষয়টিও উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে আফগানদের জন্য। ক্ষমতা দখলের পর আফগান জনগোষ্ঠীর নিরাপত্তা জোরদারের প্রতিশ্রুতি দিলেও তাদের আমলেই নারীদের একটি স্কুলে বোমা হামলা চালায় ইসলামিক স্টেট খোরাসান বা আইএসকে। এতে অন্তত একশ শিক্ষার্থীর প্রাণহানি ঘটে। এছাড়াও বিভিন্ন সময় মসজিদে হামলাসহ দেশটির শিয়া সম্প্রদায়ের ওপর বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন সাধারণ আফগানরা।

তালেবান ক্ষমতায় আসার পর তাদের প্রতিশ্রুতিগুলোর মধ্যে অন্যতম ছিল নারী শিক্ষা। নারী ও মেয়েদের স্কুল কলেজে যাওয়ার সুযোগ দেওয়ার কথা বললেও এখনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে পারছেন না দেশটির নারীরা। সবশেষ গেল কয়েকদিন আগে স্কুলে যাওয়ার অনুমতি দিলেও এখনো অনিশ্চয়তায় ভুগছেন সেখানকার নারী শিক্ষার্থীরা।

তালেবান আমলে আফগানিস্তানের স্বাস্থ্যব্যবস্থারও চরম অবনতি ঘটেছে। দেশটিতে অপুষ্টিজনিত সমস্যা প্রকট হচ্ছে। হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে অপুষ্টিতে ভোগা শিশু ভর্তির সংখ্যা। আফগানিস্তানে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরাও বেতন পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ রয়েছে।

তালেবান আফগানিস্তান দখলের পর ভবিষ্যত অন্ধকার বলে মনে করছেন আফগানরা। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here