অনলাইন ডেস্কঃ বিমানমন্দরের শুল্ক বিভাগের হাতে ৫ কোটি টাকার ঘড়ি বাজেয়াপ্তের খবর সঠিক নয় বলে দাবি করেছেন হার্দিক পান্ডিয়া।

এর আগে ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ভারতীয় ক্রিকেটার হার্দিক পান্ডিয়ার ৫ কোটি টাকার ঘড়ি জব্দ করা হয়েছে।

আলোচিত ওই খবরকে ভুয়া দাবি করে টুইটবার্তায় হার্দিক পান্ডিয়া বলেন, ‘আমি নিজেই মুম্বই বিমানমন্দরের শুল্ক বিভাগে গিয়ে দুবাই থেকে কিনে আনা ঘড়ির শুল্ক কর দিতে চাই। আমি তাদের জানাই, সব নিয়ম মেনেই ঘড়ি কেনা হয়েছে। আমার কাছে যা কাগজ চাওয়া হয়েছে সব জমা দিয়েছি। তার পরেও আমার একটি ঘড়ির মূল্য নির্ধারণের জন্য সেটি রেখে দেন আধিকারিকরা। ঘড়িটির দাম দেড় কোটি, পাঁচ কোটি না। আমার কাছ থেকে দুটি ঘড়ি বাজেয়াপ্ত হয়েছে বলে যে খবর ছড়িয়েছে তা ভুয়া।’

প্রসঙ্গত, হিন্দুস্তান টাইমসসহ ভারতের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছিল,  কাস্টমসে আটকা পড়েছে হার্দিক পান্ডিয়ার শখের ৫ কোটি টাকার দুটি ঘড়ি। বিশ্বকাপ খেলা শেষে দেশে ফেরার পথে বিমানবন্দরে আটকানো হয় এই অলরাউন্ডারকে। পরে সেখানে চেকিংয়ে আটক করা হয় আলোচিত সেই ৫ কোটি টাকার শখের ঘড়ি দুটি। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here