অনলাইন ডেস্কঃ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসরে আফগানিস্তান এবং ভারত দুই দলের শুরুটা হয়েছিল একেবারে ভিন্নভাবে। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে বড় জয়ের পর নামিবিয়াকে পাত্তাই দেয়নি মোহাম্মদ নবিরা। এ ছাড়া পাকিস্তানের বিপক্ষেও হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে শেষ পর্যন্ত হেরেছে আফগানরা।

অন্যদিকে, বিশ্বকাপের অন্যতম দাবিদার হিসেবে আসর শুরু করা ভারত নিজেদের প্রথম ম্যাচেই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে গো-হারা হেরেছে। এরপর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও পাত্তাই পায়নি বিরাট কোহলিরা।


কিন্তু আফগানিস্তান-ভারত মুখোমুখি হতেই যেন চিত্রনাট্য পুরোপুরি বদলে যায়। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা রশিদ-নবিদের তুলোধুনো করে বিশ্বকাপের এবারের আসরের সর্বোচ্চ সংগ্রহের রেকর্ড গড়ে আগের ম্যাচগুলোতে ছন্নছাড়া ব্যাটিং করা রোহিত-রাহুলরা। ফলাফলও যা হওয়ার তাই হয়েছে। ৬০ রানের বড় ব্যবধানে হার আফগানদের।

এদিকে ম্যাচটি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় গুঞ্জন ঢালপালা মেলছে। বিশেষ করে পাকিস্তানিরা আফগানিস্তানের দিকে সন্দেহের আঙুল তুলছে। তাদের ভাষ্য, আফগানদের কাছ থেকে ম্যাচটি কিনে নিয়েছে ভারত। তাদের সন্দেহের বড় কারণ হচ্ছে আফগানদের দেহভাষ্য। পাকিস্তানি সমালোচকদের মতে, যে আফগানরা বিশ্বকাপের বাকি ম্যাচগুলোয় দুর্দান্ত পারফর্ম করেছে, লড়াকু মনোভাব দেখিয়েছে, সেই তারা ভারতের বিপক্ষে এমন চুপসে গেল কেন?

এমনকি কেউ আবার সরাসরি বলে দিচ্ছে, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ম্যাচটি আফগানদের কাছ থেকে কিনে নিয়েছে। ভদ্রলোকের খেলা ক্রিকেটকে নষ্ট করছে তারা। এই তালিকায় নাম লিখিয়েছেন পাক অভিনেত্রী সেহার শিনওয়ারিও। তার দাবি, জমজমাট লড়াই হওয়ার মতো একটা ম্যাচ কিনে নিয়েছে। যদিও এই অভিনেত্রীর অভিযোগকে গুরুত্ব দিতে নারাজ ভারতের সাবেক ক্রিকেটাররা।

শিনওয়ারির বক্তব্যের বিরোধিতা করে ভারতের সাবেক ক্রিকেটার আকাশ চোপড়া টুইট করে লেখেন, এভাবেই ম্যাচ জিততে হয়। ভারত ভারতের মতো খেলল।


ভারতের জয়ের আনন্দের টুইটটি রিটুইট করেন পাক অভিনেত্রী সেহর। তিনি লেখেন, ‘বিসিসিআই বেশ ভালো ম্যাচ কিনল।’ আকাশ সঙ্গে সঙ্গে তাকে উত্তর দেন। আকাশ একটি ছবি পোস্ট করেন সেই টুইটে। সেখানে লেখা, ‘বুদ্ধি বন্ধ আছে, মুখটাও যদি বন্ধ থাকত।’
প্রসঙ্গত, প্রথমবার বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতকে হারিয়েছে পাকিস্তান। এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত অপরাজেয় বাবর আজমরা। উচ্ছ্বসিত পাকিস্তানি সমর্থকরা। আর নক আউট পর্বের টিকিটের জন্য এখন পরের দুই ম্যাচে জয় পেতেই হবে ভারতকে। পাশাপাশি তাকিয়ে থাকতে হবে আফগানিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের দিকে।

এবারের আসরের সুপার টুয়েলভের দুই নম্বর গ্রুপ থেকে সেমিফাইনালের টিকিট পেয়েছে পাকিস্তান। তাদের সঙ্গী হওয়ার সুযোগ এখনো টিম ইন্ডিয়ার সামনে। ৩ ম্যাচ শেষে ২ পয়েন্ট নিয়ে বিরাট কোহলিদের অবস্থান এখন টেবিলের চার নম্বরে। ৪ পয়েন্ট করে নিয়ে দুই ও তৃতীয় স্থানে আছে যথাক্রমে আফগানিস্তান ও নিউজিল্যান্ড। 

এর মধ্যে আফগানিস্তান ৪ ম্যাচ খেললেও নিউজিল্যান্ড খেলেছে ৩ ম্যাচ। ফলে আফগানরা বাকি ম্যাচে ও নিউজিল্যান্ড যে কোনো এক ম্যাচে হারলেই ভারতের সামনে সেমিফাইনালে যাওয়ার সুযোগ থাকবে। কেননা কোহলিরা পরের দুই ম্যাচে জিতলে তাদের পয়েন্ট হবে ৬। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here