অনলাইন ডেস্কঃ চলতি নভেম্বরে বঙ্গোপসাগরে ১-২টি নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে। এরমধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এছাড়া চলতি মাসে তাপমাত্রা কমতে শুরু করবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে সংস্থাটি।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের প্রতিমাসের পূর্বাভাসে নভেম্বরের মাসের জন্য দেওয়া প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পূর্বাভাসে বলা হয়, নভেম্বর মাসে দেশে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত হতে পারে। এই মাসে বঙ্গোপসাগরে ১-২টি নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে। যারমধ্যে ১টি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। এই মাসে দিন ও রাতের তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে হ্রাস পাবে। তবে এ মাসে গড় তাপমাত্রা স্বাভাবিক থাকতে পারে। দেশের উত্তরাঞ্চলে ও নদী অববাহিকায় ভোররাত থেকে সকাল পর্যন্ত হালকা বা মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। এ ছাড়া দেশের প্রধান নদ-নদীগুলো স্বাভাবিক প্রবাহ বজায় থাকতে পারে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় রংপুরে, সেখানে ছিল ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা গত ৩০ অক্টোবর চট্টগ্রামের সন্দ্বীপে ছিল ৩৪ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ইতোমধ্যে দুই ডিগ্রি তাপমাত্রা কমেছে। এ ছাড়া বিভাগীয় শহরগুলোতেও তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি কমেছে। ঢাকায় বুধবার ছিল ৩১ ডিগ্রি। যা গত ৩০ অক্টোবর ছিল ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ইতোমধ্যে ২ ডিগ্রি তাপমাত্রা কমেছে।

আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস গণমাধ্যমকে বলেন, চলতি মাসে সাগরে নিম্নচাপ থেকে একটি ঘূর্ণিঝড় হতে পারে। তিনি আরও বলেন, ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে শীতকাল শুরু হলেও এখনই সন্ধ্যার পর তাপমাত্রা কিছুটা কম অনুভূত হচ্ছে। মধ্যরাতের পর কিছু এলাকায় তাপমাত্রা ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে আসছে, আবার সকালে বেড়ে যাচ্ছে। চলতি মাসে এমন আবহাওয়াই বিরাজ করবে। তবে ধীরে ধীরে তাপমাত্রা কমে আসবে। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here