অনলাইন ডেস্কঃ ৪৩তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন ৪ লাখ ৩৫ হাজার ১৯০ চাকরিপ্রত্যাশী। এছাড়া সরকারি ১২টি প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন আরও কয়েক লাখ তরুণ-তরুণী। রাজধানীর প্রায় প্রতিটি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীদের উপচেপড়া ভিড়ে, স্বাস্থ্যবিধি ছিল ঢিলেঢালা।

প্রতিটি কেন্দ্রের সামনেই হাজারো চাকরিপ্রত্যাশী পরীক্ষার্থীর ভিড়। দেশের সরকারি চাকরির সবচেয়ে বড় প্ল্যাটফর্ম বিসিএস ৪৩তম পরীক্ষা যুদ্ধে শুক্রবার অংশ নিয়েছেন ৪ লাখ ৩৫ হাজার ১৯০ জন। ১৮শ ১৪টি পদের বিপরীতে এ লড়াই জানান দেয় দেশের কর্মসংস্থানের বিপরীতে বেকারত্বের বিশাল ব্যবধানের কথা।

৮টি বিভাগের ৩৬৯টি কেন্দ্রে সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় পরীক্ষা। যা শেষ হয় বেলা ১২টায়। ঢাকার আশপাশের জেলা থেকেও পরীক্ষার্থীর এদিন রাজধানীর কেন্দ্রগুলোতে আসেন পরীক্ষায় অংশ নিতে। একসাথে হাজারো পরীক্ষার্থীর উপস্থিতিতে কেন্দ্রগুলোর সামনে অনেকটাই নাজুক স্বাস্থ্যবিধি।

বিসিএস ছাড়াও এদিন রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ ১২টি প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। তবে একই দিনে এসব পরীক্ষার সময়সূচি হওয়ায় ক্ষোভ জানান চাকরিপ্রত্যাশীরা।

বিসিএসের যারা অংশ নিয়েছেন তারা বাদ পড়েছেন অর্থ-মন্ত্রণালয়, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন বিভাগ, বিআরটিএ, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রসহ সরকারি ১২টি প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ পরীক্ষা থেকে। এসব পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে বাকি থাকা কয়েক লাখ চাকরি প্রত্যাশীরা। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here