অনলাইন ডেস্কঃ মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান মর্ডানা দাবি করেছে, তাদের তৈরি করোনার টিকা ছয় থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের শরীরে শক্তিশালী ইউনিটি তৈরি করেছে। মর্ডানা শিগশিরই যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের (এফডিএ) কাছে এই সংক্রান্ত তথ্য জমা দেবে বলে সোমবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

মর্ডানা জানায়, দুই ডোজ ভ্যাকসিন শিশুদের মধ্যে ভাইরাস নিরপেক্ষ অ্যান্টিবডি তৈরি করছে। কিশোর ও বড়দের জন্য করোনা টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগে এই একই ফল পেয়েছিল মর্ডানা।

১৮ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য মর্ডানার টিকা বিশ্বজুড়েই অনুমোদন রয়েছে। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে তৃতীয় ডোজ করোনার টিকা দেওয়ার অনুমোদন পেয়েছে মর্ডানা। তবে এফডিএ  অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রে ১২ থেকে ১৭ বছর বসয়ীদের জন্য মর্ডানার টিকা এখনো অনুমোদন করেনি। এছাড়া টিকার বেশ কয়েকটি নেতিবাচক প্রতিক্রিয়ার খবর পাওয়ায় সুইডেনও ১২ থেকে ১৭ বছর বসয়ীদের মধ্যে মর্ডানার টিকা প্রদান স্থগিত রেখেছে।

মর্ডানা জানায়, শিশুদের টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগে ৪ হাজার ৭৫৩ জন অংশ নিয়েছিল। তাদের মধ্যে অধিকাংশ অংশগ্রহণকারীরই ক্লান্তি, মাথাব্যথা, জ্বর ও টিকা দেওয়ার স্থানে ব্যথার মতো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়েছিল।

পরীক্ষামূলক প্রয়োগে ৫০ মাইক্রোগ্রাম ডোজ ব্যবহার করা হয়েছে, যা প্রাপ্তবয়স্কদের ডোজের অর্ধেক। ৫০ মাইক্রোগ্রাম ডোজটি বুস্টার শট হিসেবে ব্যবহারেরও অনুমোদন রয়েছে।

এদিকে পাঁচ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের শরীরে ফাইজারের টিকা ৯০ দশমিক ৭ শতাংশ কাজ করেছে  বলে দাবি করেছে মর্ডনার প্রতিদ্বন্দ্বি আরেক মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানি ফাইজার-বায়োএনটেক। মঙ্গলবার এই টিকার অনুমোদন নিয়ে এফডিএ প্যানেলে ভোটগ্রহণ হবে বলে জানা গেছে। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here