অনলাইন ডেস্কঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে এক ঘণ্টার জন্য গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের চেয়ারে বসে প্রতীকী ইউএনও হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন স্কুলছাত্রী বাবলী আক্তার।

বাবলী আক্তারের বাড়ি দৌলতদিয়া ইউনিয়নের সোহরাব মন্ডল পাড়া। বাবলী স্থানীয় আইডিয়াল হাই স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

শনিবার বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত প্রতীকী দায়িত্ব পালন করেন ওই স্কুল ছাত্রী। বেসরকারি সংস্থা প্লান ইন্টারন্যাশনাল ও ন্যাশনাল চিল্ড্রেন টান্সফোর্সের (এনসিটিএফ) আয়োজনে এ কার্যক্রম শুরু হয়।

গোয়ালন্দ উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি মো. রফিকুল ইসলামের উপস্থিতিতে এক ঘণ্টার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হিসেবে ভূমিকা পালন করেন স্কুলছাত্রী বাবলী। এ সময় প্রতীকী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে বাল্যবিবাহ, নারী ও শিশু নির্যাতনসহ নারীর প্রতি সংহিসতা রোধে আলোচনা করেন।

বাবলী বলেন, আজকের এই প্রতীকী আগামীতে বাস্তাবে রূপ দিতে পড়ালেখার ওপর আরও গুরুত্ব আরোপ করব। স্বপ্ন পূরণে একদিন সত্যিকার উপজেলা নির্বাহী অফিসার হয়ে নারীবান্ধব উপজেলা গড়ে তুলব।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, নারীর অবদান এখন দেশের গুরুত্বপূর্ণস্থানে। আজকের তরুণ প্রজন্ম ও নারীরাই একদিন দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাবে। আমরা চেষ্টা করছি নারীরা যেন কোনো ক্ষেত্রেই কোনো অধিকার থেকে বঞ্চিত না হয়। স্কুলছাত্রী কিছু সুপারিশ দিয়েছেন। সেগুলো বাস্তবায়নে কাজ করব।

এ সময় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা কেকেএস’র পিআইসি কর্মকর্তা মো. আমজাদ হোসেন, প্রদীপ প্রকল্পের কর্মকর্তা রুমা খাতুন, কেকেএস কর্মকর্তা মঞ্জুরুল ইসলাম, প্লান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের ওয়াইমুড প্রকল্পের কর্মকর্তা পথিক পাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সূত্রঃ বিডি-প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here