অনলাইন ডেস্কঃ স্কটল্যান্ডের-বাংলাদেশ ম্যাচের প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ হয়েছেন ক্রিস গ্রিভস। বোলিং-ব্যাটিংয়ে তার দাপটের উপর ভর করেই এসেছে স্কটিশদের ম্যাচ জয়। অথচ পেশাদার ক্রিকেটার নন গ্রিভস, বোর্ডের সাথেও নেই চুক্তি। পেশায় অ্যামাজনের ডেলিভারি ম্যান তিনি। সেই চাকরি টিকিয়ে রেখেই ক্রিকেট খেলে চলছেন এই অলরাউন্ডার। এ কারণে স্কটিশ অধিনায়ক কাইল কোয়েটজারের কন্ঠে গ্রিভস বন্দনা যেন একটু বেশিই শোনা গেল।

২৮ বলে ৪৫ রানের দারুণ ঝলমলে এক ইনিংসের সাথে সাজঘরে ফিরিয়েছেন টাইগারদের দুই অভিজ্ঞ ক্যাম্পেইনার সাকিব ও মুশফিককে। অথচ এই গ্রিভস স্কটল্যান্ডের জাতীয় দলের কোনো চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়ই না। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশের সাথে ম্যাচটিই ছিল জাতীয় দলের হয়ে তার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। অংশ নেয়া পেশাদারি ম্যাচের তালিকায় আছে মাত্র দুটি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ ও ৫ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। আর পেশাদার ক্রিকেটার নন বলেই এতো কম ম্যাচ খেলা হয়েছে গ্রিভসের। পেশায় অ্যামাজনের ডেলিভারি ম্যান; সেই থেকে তার ক্রিকেটার হওয়ার গল্প শোনালেন স্কটিশ ক্যাপ্টেন কাইল কোয়েটজার।

কাইল কোয়েটজার বলেন, আমি গ্রিভসকে নিয়ে খুবই গর্বিত। বেশি দিন হয়নি সে অ্যামাজনের ডেলিভারি পার্সেলের কাজ করতো। আর এখন সে কিনা বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচের ম্যান অফ দ্য ম্যাচ! আজ সে যেখানে আছে, এর পিছনে অনেক ত্যাগ রয়েছে যা অনেকেই জানেন না। গ্রিভস বোর্ডের সাথে চুক্তির আওতায় নেই। কঠোর পরিশ্রম করে দলে জায়গা করে নিয়েছে। সহযোগী দেশগুলোতেও ভালো ক্রিকেটার আছে, সে তার প্রমাণ। তাদের শুধু নিজেদের প্রমাণের মঞ্চ দরকার। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here