অনলাইন ডেস্কঃ জাতিবিদ্বেষমূলক মন্তব্য করে বড়সড় বিপাকে পড়লেন ভারতীয় ক্রিকেটার যুবরাজ সিং। গত বছর রোহিত শর্মার ইনস্টাগ্রামে একটি লাইভ সেশনে এসে যুজবেন্দ্র চাহালের উদ্দেশে জাতিবিদ্বেষমূলক মন্তব্য করেছিলেন যুবরাজ। এরপরই তার নামে মামলা দায়ের হয়। সেই মামলাতেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। খবর টাইমস অফ ইন্ডিয়ার।

রোববার (১৭ অক্টোবর) ভারতের হরিয়ানায় হিসারের পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন এই তারকা ক্রিকেটার।

জানা যায়, কয়েকদিন আগেই এই সংক্রান্ত মামলায় হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন নিয়েছিলেন যুবরাজ সিং। এদিন তাই তদন্তে সাহায্য করতেই হিসারে এসেছিলেন এই ক্রিকেটার। সঙ্গে ছিলেন তার নিরাপত্তারক্ষী এবং উকিল। এরপরই আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপরই কিছু প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা হয় যুবরাজকে। তারপর আগাম জামিনের কাগজের ভিত্তিতে তাকে ছেড়েও দেয়া হয়েছে।

গত বছর ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মার সঙ্গে একটি ইনস্টাগ্রাম লাইভে হাজির হয়েছিলেন এই ভারতীয় অলরাউন্ডার। সেখানেই তার একটি মন্তব্য নিয়ে তৈরি হয় বিতর্ক। অভিযোগ ছিল, অন্যান্য ক্রিকেটারকে নিয়ে মশকরা করতে গিয়ে দলিতদের অসম্মান করে বসেন যুবি। তার মন্তব্যের জেরে কড়া সমালোচনার মুখেও পড়তে হয়েছিল তাকে। পরে অবশ্য নিজের ভুল বুঝতে পেরে ক্ষমাও চেয়েছিলেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানিয়েছিলেন, আমি কখনোই জাত, বর্ণ কিংবা লিঙ্গের ভেদাভেদে বিশ্বাসী নই। আমি প্রতিটি মানুষকে সমানভাবেই দেখি ও তাদের কল্যাণে কাজ করার চেষ্টা করি। নিঃস্বার্থে একে অপরের পাশে দাঁড়ানোই জীবন।

সেই ঘটনার প্রায় আট মাস পর দায়ের হয় এফআইআর। হরিয়ানার হিসারের এক আইনজীবী যুবরাজের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here