অনলাইন ডেস্কঃ ইনজুরি কাটিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই ফিরছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। পুরনো পিঠের ইনজুরি মাথাচাড়া দিয়ে ওঠায় বিশ্বকাপ মিশনের প্রস্তুতি ম্যাচগুলোতে ছিলেন না বাংলাদেশ অধিনায়ক। তবে গ্রুপপর্বের প্রথম ম্যাচ থেকেই নিজের খেলার সম্ভাবনা আইসিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জানালেন তিনি।

চোট গুরুতর না হলেও তাকে নিয়ে কোনো ঝুঁকি নিয়ে চায়নি টিম ম্যানেজমেন্ট। তাই ওমান ‘এ’ দলের বিপক্ষের প্রস্তুতি ম্যাচ কিংবা শ্রীলঙ্কা-আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেকে ঝালিয়ে নেওয়ার চেয়ে মুখ্য ছিল রিয়াদের সেরে ওঠা। তাই বিশ্রামে ছিলেন টি-টোয়েন্টি আধিনায়ক। তবে বিশ্রামের পালা শেষে এবার সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়ার পালা তার।

রিয়াদ বলেন, ইনজুরিটা ক্রমেই ভালোর দিকে যাচ্ছে। পিঠে একটু ব্যথা থাকায় প্রস্তুতি ম্যাচগুলোতে খেলিনি। কয়েক মাস আগেও চোটে পড়েছিলাম। টিম ম্যানেজমেন্ট এবার কোনো ঝুঁকি নিতে চায়নি। তবে আমি আশাবাদী প্রথম ম্যাচ থেকেই খেলতে পারব। বিশ্বকাপের আগে ভালো প্রস্তুতি ছিল আমাদের। বিশেষ করে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ভালো সিরিজ কাটিয়েছি। দেশের মাটিতে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েছি। এটা আমাদের দলের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়েছে।

প্রস্তুতি ম্যাচ শ্রীলঙ্কা ও অ্যায়ারর‍্যান্ডের কাছে হারলেও ওমান-আরব আমিরাতের কন্ডিশনে মূল পর্বে ভালো করবে বাংলাদেশ বলে দাবি রিয়াদের। উইকেট যেমনই হোক না কেন তাতে সুবিধা নেওয়ার ক্ষামতা বাংলাদেশি স্পিনার ও পেসারদের আছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি আধিনায়ক।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ স্পিনাররা অনেক বছর ধরেই আমাদের হাতিয়ার। আমি মনে করি স্পিন ও পেসের ভালো কম্বিনেশন আছে। এখানে কন্ডিশন যেমনই থাকুক না কেন আমাদের মানিয়ে নিতে হবে। স্পিনবান্ধব উইকেট পেলে আমাদের স্পিনারদের জন্য ভালো হবে, ফাস্ট বোলাররাও ভালো করবে। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here