অনলাইন ডেস্কঃ ঘূর্ণিঝড় কমপাসুর প্রভাবে হংকংয়ে ব্যাপক বৃষ্টিপাত ও জলোচ্ছ্বাস দেখা দিয়েছে। বন্ধ করা হয়েছে সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

যে কোনো সময় হাইনান প্রদেশে আঘাত হানবে ঘূর্ণিঝড়টি। এরইমধ্যে জানমালের ক্ষতি কমাতে প্রস্তুতি নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সময় বুধবার (১৩ অক্টোবর) ভোরে ঘণ্টায় ১০১ কিলোমিটার গতিতে হংকংয়ের উপকূল অতিক্রম করে ঘূর্ণিঝড় কমপাসু। ভারি বৃষ্টিপাত ও জলোচ্ছ্বাসে তলিয়ে যায় শহরটির উত্তরাঞ্চল।

কর্তৃপক্ষ জানায়, কমপাসুর কারণে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সরকারি অফিস। একইসঙ্গে নিচু এলাকায় অবসবাসরত নাগরিকদের নিরাপদে থাকতে বলা হয়েছে। এরইমধ্যে হংকংয়ে বেশ কয়েকজনের হতাহতের খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে হংকং অতিক্রম করে হাইনান প্রদেশের দিকে ধেয়ে যাচ্ছে ঘূর্ণিঝড়টি। বুধবারই প্রদেশটির উপকূলে আঘাত হানবে কমপাসুর। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ। নেওয়া হয়েছে সবধরনের প্রস্তুতি। সাগর থেকে জেলেদের নিরাপদে থাকতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে উপকূলীয় অঞ্চল থেকে মানুষদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার ফিলিপিন্সে আঘাত হানে ঘূর্ণিঝড় কমপাসুর। এতে অন্তত ১১ জনের মৃত্যু হয়। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here