অনলাইন ডেস্কঃ মার্কিন বহুজাতিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট বলছে, ইরানের সঙ্গে সংযুক্ত সন্দেহভাজন হ্যাকাররা যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইলের প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি এবং নৌপরিবহণসংক্রান্ত কয়েকডজন সংস্থাকে আক্রমণের লক্ষ্যবস্তু বানিয়েছে। বেশ কয়েকটিতে হ্যাকাররা তথ্য হাতিয়ে নিতে সফল হয়েছে।

সোমবার মাইক্রোসফট এসব তথ্য জানায়। খবর সিএনএনের।

মার্কিন এ টেক জায়ান্ট জানায়, গত জুলাইয়ে ইরানি সংশ্লিষ্ট হ্যাকাররা গুপ্তচরবৃত্তি অভিযান শুরুর পর বর্তমানে বহু কোম্পানিকে হ্যাকিংয়ের ঝুঁকিতে ফেলে দিয়েছে।

হ্যাকারদের লক্ষ্যবস্তুতে থাকা কোম্পানির মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং ইসরাইল সরকারের সঙ্গে কাজ করে এমন প্রতিষ্ঠানও রয়েছে, যারা স্যাটেলাইট সিস্টেম, ড্রোন প্রযুক্তি এবং ‘মিলিটারি-গ্রেড রাডার’ তৈরি করে, বলছে সংস্থাটি।

মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আইবিএম জানিয়েছে, এটি সামুদ্রিক খাতে স্পর্শকাতর তথ্যের জন্য ইরানি হ্যাকার গোষ্ঠীর সর্বশেষ প্রচেষ্টা।

যদিও মাইক্রোসফট এ ঘটনার জন্য সরাসরি ইরানি সরকারি প্রতিষ্ঠানকে দায়ী করেনি।

মাইক্রোসফট থ্রেট ইন্টেলিজেন্স সেন্টারের প্রধান জন ল্যামবার্ট বলেন, চলতি গ্রীষ্মে একটি মার্কিন ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস ফার্মের ত্রুটির জবাব দেওয়ার সময় এই হ্যাকিং কার্যকলাপ ধরা পড়ে। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here