অনলাইন ডেস্কঃ প্রার্থনা ফারদিন দীঘি আর শিশুশিল্পী নন। রূপালি জগতে তিনি এখন চিত্রনায়িকা। ‘বাবা জানো আমাদের ময়না পাখিটা’ বুলি আওড়ানো দিঘীর মুখে এখন শোনা যাচ্ছে রোমান্টিক সব ডায়ালগ।

দুটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে ইতোমধ্যে। যদিও সেভাবে সাড়া জাগাতে পারেননি চলচ্চিত্র জগতের এই পরিচিত মুখ। তবে টিকটকে সবার নজর কেড়েছেন এ নায়িকা।

সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি টিকটকে ভিডিও বানান দীঘি। এসব ভিডিওতে নানারকম গান-সংলাপের সঙ্গে ঠোঁট মেলাতে দেখা যায় তাকে। এমনকি বলিউড গান ও হিন্দি সংলাপেও টিকটক করেন তিনি।

আর এই টিকটকই তার সিনেমায় পথের কাঁটা হয়ে দাঁড়াল। প্রযোজক তার টিকটক করা নিয়ে আপত্তি তুলেছেন।

সম্প্রতি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার নতুন সিনেমা ‘মানব দানব’-এ অভিনয়ের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন দীঘি। তার বিপরীতে ভারত থেকে উড়িয়ে আনার কথা ছিল টালিউডের ‘বরবাদ’ খ্যাত বনি সেনগুপ্ত।

গোটা বিষয়টা প্রায় চূড়ান্ত ছিল। কিন্তু শাপলা মিডিয়ার মালিক সেলিম খানের এক আপত্তিতে সিনেমাটি থেকে বাদ পড়লেন দীঘি।

‘মানব দানব’ এর প্রযোজক তিনটি শর্ত দিয়েছেন দীঘিকে।

এ বিষয়ে গণমাধ্যমে সেলিম খান বলেন, ‘দীঘিকে যে তিনটি শর্ত দেওয়া হয়েছে, তা হলো, পরপর শাপলা মিডিয়ার ৫টি সিনেমায় অভিনয় করতে হবে তাকে। দ্বিতীয় হলো- টিকটক ও ফেসবুকে বেশি ছবি-ভিডিও দেওয়া যাবে না। তৃতীয় শর্ত ছিল- ১৭ অক্টোবর থেকে শুটিং করতে হবে। কারণ কলকাতার বনি, রজতাভ দত্ত ওই সময়েই শিডিউল দিয়েছেন।’

আর সেসব শর্ত মানতে না পারায় সিনেমাটিতে থাকছেন না এ অভিনেত্রী। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here