অনলাইন ডেস্কঃ যৌতুকের দাবিতে একাধিক নারী নির্যাতনকারী আলোচিত মিজানুর রহমান ওরফে মিজানকে অবশেষে টঙ্গী থেকে গ্রেফতার করেছে পাগলা থানা পুলিশ। যৌতুকের জন্য নির্যাতন ও জোরপূর্বক গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগে ময়মনসিংহ জেলার পাগলা থানায় তার নামে মামলা হয়।

গ্রেফতারকৃত মিজানুর রহমান (৩৫) ময়মনসিংহ জেলার পাগলা থানার শাকরা পাড়ার নিজাম উদ্দিনের ছেলে। আজ শুক্রবার গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গী পূর্ব আরিচপুর জামাই বাজারের নিজস্ব বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে পাগলা থানা পুলিশ। যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন ও জোরপূর্বক টঙ্গীর মেরী স্টোপস ক্লিনিকে নিয়ে গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগে মিজানের বর্তমান স্ত্রী খালেদা আক্তার পাগলা থানায় মামলাটি (নং-১৭) রুজু করেন। মামলায় ওই গৃহবধূর শাশুড়ি মনোয়ারা ও ননদ (স্বামীর বোন) মাহফুজা আক্তারকেও আসামি করা হয়েছে।

ঘটনাটি নাটককেও হার মানিয়েছে মন্তব্য করে পাগলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাশেদুজ্জামান বলেন, প্রাথমিক তদন্তে গৃহবধূর অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। গৃহবধূর অভিযুক্ত স্বামী মিজানকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভিকটিমের শাশুড়ি ও ননদকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। জোরপূর্বক গর্ভপাত ঘটানোর ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here