অনলাইন ডেস্কঃ ঝাড়খণ্ড রাজ্য বিধানসভায় মুসলমান বিধায়ক ও কর্মীদের নামাজ পড়ার জন্য একটি ঘর বরাদ্দ দিয়েছেন স্পিকার।  আর এতেই ক্ষুব্ধ হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। স্পিকার কেন নামাজের ঘর দিয়েছেন এর প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বিজেপি সারা রাজ্য জুড়ে ‘কালো দিবস’ পালন করছে।

এর আগে বুধবার দলের কর্মী সমর্থকরা রাস্তায় বিক্ষোভ করার সময় পুলিশ তাদের ওপরে লাঠিচার্জ ও জলকামান ছোড়ে।

এদিকে বিজেপির প্রতিবাদের কারণে স্পিকার রবীন্দ্রনাথ মাহাতো বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, নামাজের ঘর রাখা হবে কী না, তা একটি সর্বদলীয় কমিটি স্থির করবে।

বিবিসি বাংলা জানিয়েছে, সম্প্রতি বিধানসভার সচিবালয় এক নির্দেশনায় জানায়, টি ডব্লিউ ৩৪৮ নম্বর ঘরটিকে নামাজ পড়ার জন্য ব্যবহার করা হবে। এরপর থেকেই বিজেপি প্রতিবাদ শুরু করে।

গত সোমবার বিধানসভার অধিবেশন শুরু হতেই বিজেপির বিধায়করা বিক্ষোভ দেখান। তারা ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগানও দেন।

ওই রাজ্যে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার নেতৃত্বাধীন সরকার রয়েছে ২০১৯ সাল থেকে, আর বিজেপি সেখানে প্রধান বিরোধী দল।

বিজেপির অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সরেন তোষণের রাজনীতির সব সীমা ছাড়িয়ে গেছেন। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here