অনলাইন ডেস্কঃ বাংলাদেশের কন্ডিশনে কী করতে হবে, প্রথম দুই ম্যাচ হারের পর তা এখন ভালোভাবে বুঝে গেছে নিউজিল্যান্ড।

তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বড় জয়ের পর ফুরফুরে মেজাজেই ৪র্থ ম্যাচে নেমেছিল কিউইরা।

তবে বাজেভাবে হারের পর বাংলাদেশও যে ঘুরে দাঁড়ানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে, সেটাও জানা ছিল সফরকারীদের। পালটা জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত কিউইরা, সেটা জানিয়েছিলেন কিউই কোচ গ্লেন পকন্যাল।

বলেছিলেন, আগুনের জবাব আগুন দিয়েই দেবেন।

তবে মাঠে সে জবাব দিতে ব্যর্থ হয়েছেন তার শিষ্যরা। মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার চতুর্থ ম্যাচে ৬ উইকেটে জিতে ইতিহাস গড়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জিতেছে টাইগাররা।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ তো দূরে থাক, অতীতে টি-টোয়েন্টিতে জয়ের দেখাও পায়নি বাংলাদেশ। আর এবার ঘরের মাঠে ব্ল্যাক ক্যাপসদের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি জয়ের স্বাদ নেওয়ার পর সিরিজ জয়ের স্বাদটাও নিয়ে ফেলল বাংলাদেশ।

এদিকে সিরিজ হারের পর নিউজিল্যান্ড দলের অধিনায়ক টম ল্যাথাম বলেন, ‘আমরা আসলে এই উইকেটে ১০০-১১০ রান সংগ্রহ করার লক্ষ্যে এগুচ্ছিলাম, কিন্তু সেটা পারিনি। যা বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা পেরেছে। খুব দ্রুত কয়েকটি উইকেট আমাদের পড়ে গেলে ম্যাচটি বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রণে চলে যায়। আর বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ যেখানে খেলা শেষ করে এসেছে, সত্যি প্রশংসনীয়। তবে আমি খুশি যে আমাদের বোলাররা খেলাটিকে শেষ ওভার পর্যন্ত নিয়ে গেছেন। ইয়ং দুর্দান্ত একটি ইনিংস খেলেছে। তার বদৌলতেই আমরা একটা লড়াকু পুঁজি দাঁড় করতে পেরেছি।’

সিরিজ হারের বিষয়ে কিউই অধিনায়ক বলেন, ‘আমাদের উইকেটগুলো খুব দ্রুত পড়েছে তাই ম্যাচকে সামলে নিয়ে এগিয়ে যাওয়া বেশ কষ্টকর হয়ে পড়ে। তবে এমন ভিন্নরকম পরিবেশে আমরা ধীরে ধীরে নিজের মানিয়ে নিচ্ছি। আমাদের দলের বড় একটি অংশই তরুণ, যারা বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেনি। আর আমাদের অধিকাংশেরই বাংলাদেশে এসে খেলার অভিজ্ঞতা নেই। পঞ্চম টি-টোয়েন্টিতে আমাদের পারফরম্যান্স এর থেকে ভালো হবে বলে আশাবাদী আমি।’ সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here