অনলাইন ডেস্কঃ করোনার কারণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত থাকা পরীক্ষা আগামী সেপ্টেম্বর থেকে সশরীরে শুরু হচ্ছে।পরীক্ষাসংশ্লিষ্ট সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করতে বলা হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সোমবার রাতে এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, করোনা পরিস্থিতির অবনতি হলে চলমান বিভিন্ন পরীক্ষা গত মার্চ মাসে স্থগিত ঘোষণা করা হয়।  বিধিনিষেধ উঠে যাওয়া এবং টিকা কার্যক্রম সম্প্রসারণের পর সোমবার (৩০ আগস্ট) রাতে পরীক্ষার নেওয়ার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

এতে বলা হয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা গ্রহণ এবং পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। পরীক্ষা কেন্দ্রে দুই জন পরীক্ষার্থীর মাঝে অন্তত ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রেখে (আসন বিন্যাসের নমুনা-১ অথবা আসন বিন্যাসের নমুনা-২ এর অনুরূপভাবে) আসন ব্যবস্থা করতে হবে। এক্ষেত্রে প্রয়োজনে কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে কেন্দ্রে পরীক্ষা গ্রহণ করা যাবে। সব শিক্ষক, পরীক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারী মাস্ক পরিধান করে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করবেন। মাস্ক সঠিক নিয়মে পরতে হবে এবং মাস্ক ছাড়া কেউ পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। শুধুমাত্র পরীক্ষার্থীর পরিচয় নিশ্চিত করার জন্য সাময়িক মাস্ক খোলা যাবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও নির্দেশনা দিয়ে বলা হয়, পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের আগে হাত ধোয়ার জন্য প্রয়োজনীয় সাবান এবং পানির ব্যবস্থা রাখতে হবে।  প্রয়োজনে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখতে হবে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ১৮ বছর ও তার বেশি বয়সী সবাইকে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়া হচ্ছে। যেসব শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী এখনো টিকা গ্রহণ করেননি, তাদের টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।

এ ছাড়া স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের জারি করা সব স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করার জোরাল নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে ওই বিজ্ঞপ্তিতে। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here