অনলাইন ডেস্কঃ বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক মাগুরার শাখার ঊর্ধ্বতন মুখ্য কর্মকর্তা নাজমুল হকের বিরুদ্ধে এক কোটি ২৩ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রোববার দুদক সমন্বিত যশোর জেলার কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মাহফুজ ইকবাল এ মামলা দুটি দায়ের করেন।

অভিযুক্ত নাজমুল হক ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কাঞ্চনপুর মধ্যপাড়ার নজরুল ইসলামের ছেলে।

এ প্রসঙ্গে সোমবার দুদক সমন্বিত যশোর জেলার কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. নাজমুচ্ছায়াদত জানান, প্রাথমিক তদন্তে নাজমুল হকের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের সত্যতা পাওয়ায় গেছে। তার বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, অভিযুক্ত নাজমুল হক ২০২০ সালের ২৬ নভেম্বর ব্যাংকের মাগুরা শাখায় যোগদান করেন। চাকরিকালে চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারি থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০ পর্যন্ত দুই দফায় মোট ৩৭ লাখ ৮৩ হাজার ৭৩৪ টাকা ব্যাংক হিসাবের খরচের খাত হতে নিজ সঞ্চয়ী হিসাবে স্থানান্তর করেন। তিনি ওই টাকা আত্মসাৎ করেন।

অপর মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, অভিযুক্ত নাজমুল হক ২০১৮ সালের ২৮ অক্টোবর থেকে ২০১৯ সালের ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক ঝিনাইদহ শাখায় কর্মরত ছিলেন। সেখানে চাকরিকালে ২০১৯ সালের ৩ জুন থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৯ দফায় মোট ৮৫ লাখ ৮৭ হাজার ২২৫ টাকা ব্যাংকের ঋণ সুদের হিসাব খাত থেকে নিজ সঞ্চয়ী হিসাব নম্বরে স্থানান্তর ও আত্মসাৎ করেন।

দুদকের দুটি মামলায় এক কোটি ২৩ লাখ ৭০ হাজার ৯৫৯ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে। এ ঘটনায় গত ২৫ আগস্ট সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্তৃপক্ষ তাকে ঝিনাইদহ সদর থানায় সোপর্দ করে। সেই থেকে তিনি কারাগারে রয়েছেন। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here