অনলাইন ডেস্কঃ নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বাইতুস সালাত জামে মসজিদ বিস্ফোরণে হতাহতের ঘটনার প্রায় এক বছর পর মসজিদটি খুলে দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন হয়েছে।

শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে তল্লা এলাকায় অবস্থিত ক্ষতিগ্রস্ত মসজিদটির সামনে এ মানববন্ধন হয়। এতে এলাকাবাসীসহ হতাহতের পরিবারের সদস্যরা অংশ নেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, মসজিদের নিচে কোনো গ্যাস সংযোগ অথবা গ্যাস লাইনের পাইপ পাওয়া যায়নি। মসজিদের বাইরে দিয়ে যাওয়া সংযোগ থেকে গ্যাস লিকেজ হয়ে ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়েছে।

মুসল্লিরা বলেন, বিস্ফোরণের আগে তিতাস কতৃর্পক্ষকে বার বার জানানো হলেও তারা কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ায় ৩৪টি তাজা প্রাণ মসজিদে শহীদ হয়েছে। বিস্ফোরণের ঘটনা এক বছর হতে চললেও মসজিদটি এখনও খুলে দিচ্ছে না প্রশাসন।

তারা বলেন, ঘরের সামনে মসজিদ রেখে অনেক দূরের মসজিদে গিয়ে নামাজ পড়তে হয়। বয়স্ক মুসল্লিরা অনেকেই জামাতের সঙ্গে মসজিদে নামাজ আদায় করতে পারছেন না।

এক সপ্তাহের মধ্যে মসজিদটি খুলে দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন বক্তারা।

গত ৪ সেপ্টেম্বর এশার নামাজ চলাকালে ফতুল্লা থানার পশ্চিম তল্লা এলাকার বাইতুস সালাত জামে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে ৩৪ জনের মৃত্যুসহ আরও ১৫ জন দগ্ধ হন।

মসজিদের অভ্যন্তরে বিদ্যুতের সংযোগ থেকে স্পার্ক ও গ্যাস পাইপ লাইনের লিকেজ থেকে জমে থাকা গ্যাসের মিশ্রণে বিস্ফোরণ হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত  বিভাগ (সিআইডি)।

এ ঘটনায় পুলিশের করা মামলায় চার মাস তদন্ত শেষে ৩১ ডিসেম্বর ২৯ জনকে আসামি করে নারায়ণগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দেয় সিআইডি। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here