অনলাইন ডেস্কঃ আফগানিস্তান থেকে বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের দেড় মাসেরও কম সময়ের মধ্যে আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে তালেবান নেতারা। ফলে বিষয়টি নিয়ে আন্তর্জাতিক মহল বেশ চিন্তিত। এই প্রেক্ষিতে রবিবার ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, এখনই তালেবানকে আফগানের বৈধ কর্তৃপক্ষ হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া উচিত হবে না।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আফগানিস্তানে খুবই তাড়াতাড়ি নতুন সরকার আসতে যাচ্ছে। তারপরও ‘আমরা চাই না যে কেউ দ্বিপাক্ষিকভাবে তালেবানকে স্বীকৃতি দিক।’

তিনি আরও বলেন, আফগানিস্তান সন্ত্রাসের প্রজননস্থল হোক কেউ চায় না। তিনি জাতিসংঘ ও ন্যাটোর সাথে একযোগে আফগানিস্তানে কাজ করার ব্যাপারেও আগ্রহ প্রকাশ করেন।

এদিকে রাশিয়ার সরকার জানিয়েছে, তারা এই মুহূর্তে তালেবানকে আফগানিস্তানের বৈধ কর্তৃপক্ষের স্বীকৃতি দিচ্ছে না। তবে পশ্চিমা বিশ্ব তালেবানকে স্বীকৃতি দিক না দিক তালেবান ঠিক দেশটির প্রেসিডেন্ট ভবনের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে কাজ করা ব্যক্তিদের সাধারণ ক্ষমার কথাও জানিয়েছে।

অন্যদিকে, তালেবান সদস্যরা রাজধানী কাবুল দখলে নেওয়ার পরে প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি দেশ ছেড়েছেন। প্রসঙ্গত, তালেবান গোষ্ঠী ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আফগানিস্তান শাসন পরিচালনা করে। পরে তাদের বিরুদ্ধে আল-কায়েদার নেতাদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয়ার অভিযোগে ২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা জোট সেখানে যৌথ অভিযান চালায়, যার মাধ্যমে তালেবান শাসনের অবসান ঘটে। সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here