অনলাইন ডেস্কঃ আফগানিস্তান থেকে ন্যাটোর সেনা সরানোর সিদ্ধান্তের ১০০ দিনের মাথায় তালেবানের কাবুলে প্রবেশের পর প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এ খবর নিশ্চিত করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। খবরে বলা হয়েছে, আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি তাজিকিস্তানে চলে গেছেন।

এর মধ্য দিয়ে অবশেষে পতন হলো রাজধানী কাবুলেরও। এখন অভিষেক ঘটতে চলেছে আরেক গনির। তালিবান প্রধান মোল্লা আবদুল গনি বারাদার হতে পারেন আফগানিস্তানের নতুন প্রেসিডেন্ট। এর আগে, আফগানিস্তানে নারী ও সংবাদমাধ্যমে অধিকার সম্মান ও রক্ষা করার অঙ্গীকার করেছেন তালেবানের এক মুখপাত্র। আজ রবিবার প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এই অঙ্গীকার করেন তিনি।

ওই মুখপাত্র বলেন, নারীদের তাদের বাড়িতে একা থাকার অনুমতি দেয়া হবে এবং তাদের জন্য শিক্ষাগ্রহণ ও কাজের সুযোগ অব্যাহত রাখা হবে। পাশাপাশি সংবাদমাধ্যমকেও স্বাধীনভাবে কাজের সুযোগ দেয়া হবে বলে জানান ওই মুখপাত্র। তবে মত প্রকাশের স্বাধীনতার নামে কোনো প্রকার ‘চরিত্র হননের’ সুযোগ দেয়া হবে না বলে বিবৃতিতেক জানান ওই মুখপাত্র।

উল্লেখ্য, ১৯৯৬ থেকে ২০০১ থেকে আফগানিস্তানে তালেবানের প্রথম আমলে কঠোর নিয়ন্ত্রণমূলক শাসনের জন্য সমালোচনার শিকার হয়েছিল সশস্ত্র দলটি। ওই সময় ১২ বছরের কম বয়সী মেয়েদের স্কুলে যেতে বাধা, একাকি নারীদের রাস্তায় বের হতে না দেয়াসহ বিভিন্ন পদক্ষেপের কারণে তারা সমালোচিত হয়। সূত্র: বিডি-প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here