অনলাইন ডেস্কঃ দীর্ঘদিন প্রেম করার পরও বিয়েতে রাজি হচ্ছিলেন না প্রেমিকা। তাই নিয়ে প্রেমিক-প্রেমিকার ঝগড়া; ঝগড়ার এক পর্যায়ে রাগের মাথায় প্রেমিককে মরতে বলেছিলেন প্রেমিকা। আর পরে সত্যি সত্যি ফেসবুক লাইভে গিয়ে আত্মহত্যা করেন প্রেমিক।

স্থানীয় সময় রোববার (৮ আগস্ট) ভারতের মহারাষ্ট্রের থাণে জেলার কল্যাণ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের বরাত দিয়ে সংবাদ সংস্থা পিটিআই এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ২৭ বছরের এক তরুণের সঙ্গে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল এক তরুণীর। ওই তরুণ পেশায় একজন হাসপাতাল কর্মী। কিছুদিন আগে তরুণীকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন তরুণ। কিন্তু তরুণী বিয়েতে রাজি হননি।

এরপর রোববার বিষয়টি নিয়ে আবারও তাদের মধ্যে আলোচনা হয়। আলোচনা একপর্যায়ে ঝড়ায় গড়ায়। আর ঝগড়া চলাকালে রাগের মাথায় তরুণকে মরতে বলেন তরুণী। এরপরই ফেসবুক লাইভে গিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন তরুণ।

আত্মহত্যার আগে লাইভে তরুণ জানান, তিন বছর ধরে সম্পর্কের পরও বিয়েতে রাজি হচ্ছিলেন না তরুণী। তাছাড়া তরুণীকে অনেক আর্থিক সাহায্যও করেছেন তিনি। কিন্তু তার পরও বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছেন তিনি।

পরে ঘটনা তদন্তে গিয়ে পুলিশ জানতে পারে, ঝগড়ার সময় রাগের মাথায় তরুণকে মরে যেতে বলেছিলেন তরুণী। কিন্তু তিনি স্বপ্নেও ভাবেননি তার প্রেমিক সেটাই করবেন। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here