অনলাইন ডেস্কঃ ৫ মে ছুটি হলে এবার ঈদে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা টানা ৯ দিনের ছুটি পাবেন। কিন্তু এ ছুটিটি দেওয়া হবে কি না এ নিয়ে আলোচনা শেষে সিদ্ধান্ত নিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

৫ মে যদি কেউ ছুটি কাটাতে চায় তাহলে তাকে নিজে থেকে ছুটি নিতে হবে। আর কেউ যদি ছুটি না নিয়ে অনুপস্থিত থাকে তাহলে  ওই সময়ের আগে-পরের ছুটি তার নিজের ছুটি থেকে কাটা যাবে।অর্থাৎ ৫ মে স্বাভাবিক নিয়মে অফিস খোলা থাকবে।

৫ মে ছুটি থাকছে না জানিয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কে এম আলী আজম গণমাধ্যমকে বলেন, ৫ মে ছুটি নিলে টানা অনেক দিনের ছুটি হচ্ছে, ওভাবেই পড়েছে আর কি। কর্মচারীদের অপশনাল ছুটির একটা বিষয় আছে। যারা বৃহস্পতিবার ছুটি নেবেন, তারা ধারাবাহিকভাবে ছুটিটা ভোগ করতে পারবেন। যিনি ছুটি নেবেন না, তাকে তো ওই দিন অফিস করতে হবে।

এবার রমজান মাস ২৯ দিনে শেষ হলে ঈদুল ফিতর হবে ২ মে, রমজান মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হলে ঈদ হবে ৩ মে।

এর আগে ২৯ ও ৩০ এপ্রিল (শুক্র ও শনিবার) সাপ্তাহিক ছুটি। এরপর ১ মে (রবিবার) মে দিবসের ছুটি। রমজান মাস ৩০ দিন ধরে সরকারি ছুটির তালিকায় ২, ৩ ও ৪ মে (সোম, মঙ্গল ও বুধবার) ঈদের ছুটি নির্ধারিত আছে। ৫ মে (বৃহস্পতিবার) একদিন অফিস খোলার পরেই আবার দুদিনের সাপ্তাহিক ছুটি। সূত্রঃ কালেরকণ্ঠ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here